বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঝাড়গ্রামের রাস্তায় গাড়ি থামাতেই মুখ্যমন্ত্রীকে ঘিরে অভিযোগের বন্যা

ঝাড়গ্রামের রাস্তায় গাড়ি থামাতেই মুখ্যমন্ত্রীকে ঘিরে অভিযোগের বন্যা

ঝাড়গ্রামের পথে মমতা

মুখ্যমন্ত্রীকে তাদের নানা না পাওয়ার কথা বলতে থাকেন তাঁরা। কেউ বলেন, জলের খুব কষ্ট। ২ কিলোমিটার দূর থেকে কাঁখে করে জল আনতে হয়। কেউ বললেন, বাড়ি ভেঙে পড়ছে। এখনো ঘর পাইনি। মুখ্যমন্ত্রী তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন।

বেলপাহাড়িতে বিরসা মুন্ডার জন্মদিন পালনের অনুষ্ঠান শেষে ঝাড়গ্রামে ফেরার পথে রাস্তায় সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলতে নেমে অভিযোগের বন্যায় ভাসলেন মুখ্যমন্ত্রী। কেউ বললেন, জল নেই, কেউ পাননি বাড়ি।

এদিন বেলপাহাড়ির সভা শেষে ঝাড়গ্রামে ফেরার পথে চার জায়গায় দাঁড়ান মুখ্যমন্ত্রী। কোথাও স্বভাবসিদ্ধ ঢংয়ে কোলে তুলে নেন শিশুকে। মুখ্যমন্ত্রীকে দেখেই এগিয়ে আসেন প্রত্যন্ত এলাকার মহিলারা। মুখ্যমন্ত্রীকে তাদের নানা না পাওয়ার কথা বলতে থাকেন তাঁরা। কেউ বলেন, জলের খুব কষ্ট। ২ কিলোমিটার দূর থেকে কাঁখে করে জল আনতে হয়। কেউ বললেন, বাড়ি ভেঙে পড়ছে। এখনো ঘর পাইনি। মুখ্যমন্ত্রী তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেন।

এই নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ১২ বছর তো টাকার সমস্যা ছিল না। এতদিন করেননি কেন? এখন কেন্দ্র টাকা দিচ্ছে না বললে হবে? বিধানসভা ভোটের আগে উনি বলেছিলেন মাসে মাসে হাজার টাকা করে দেবেন। এক মাস দিয়ে বললেন আর টাকা নেই। মানুষ ওনার প্রতারণা বুঝে গেছে। তাই জঙ্গলমহলের আদিবাসীরা রুখে দাঁড়াচ্ছেন।

এদিনের বক্তব্যে জঙ্গলমহলে জলের সমস্যার কথা উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, এবছর বৃষ্টি একটু কম হয়েছে তাই পুকুরগুলোয় জল কম আছে। আরও বেশি করে পুকুর কাটতে হবে। সেজন্য মানস ভুঁইয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

 

বন্ধ করুন