বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গরম জলের কড়াইয়ে পড়ে মৃত্যু ৫ বছরের শিশুর, ক্ষোভে মিষ্টির দোকানে ভাঙচুর মেচেদায়
বাবার কোলে অঙ্কিতা।
বাবার কোলে অঙ্কিতা।

গরম জলের কড়াইয়ে পড়ে মৃত্যু ৫ বছরের শিশুর, ক্ষোভে মিষ্টির দোকানে ভাঙচুর মেচেদায়

  • পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, অঙ্কিতার বাবা অর্ণব পেশায় গাড়ি চালক। ৩১ ডিসেম্বর এলাকায় ছিলেন না তিনি। বিকেলে বিদ্যাসাগর পল্লিরই একটি পার্কে খেলতে গিয়েছিল শিশুটি।

মিষ্টির দোকানের গরম জলের কড়াইয়ে পড়ে শিশুকন্যার মৃত্যুর জেরে উত্তেজনা ছড়াল পূর্ব মেদিনীপুরের মেচেদায়। নিহত শিশুটির নাম অঙ্কিতা গোস্বামী (৫)। গত ৩১ ডিসেম্বর দুর্ঘটনার পর থেকে SSKM হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিল অঙ্কিতা। বুধবার মৃত্যু হয় তাঁর। যার জেরে বৃহস্পতিবার সকালে মিষ্টির দোকানটিতে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় নিহত শিশুটির পরিবারের সদস্যরা।

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, অঙ্কিতার বাবা অর্ণব পেশায় গাড়ি চালক। ৩১ ডিসেম্বর এলাকায় ছিলেন না তিনি। বিকেলে বিদ্যাসাগর পল্লিরই একটি পার্কে খেলতে গিয়েছিল শিশুটি। পার্কের গেটের উলটো দিকেই রয়েছে একটি মিষ্টির দোকান। দোকানের সামনে কড়াইয়ে জল গরম করা হচ্ছিল। কোনও ভাবে সেই কড়াইয়ে পড়ে ।যায় অঙ্কিতা। গরম জলে তার শরীরের প্রায় পুরোটাই দগ্ধ হয়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে তমকুল জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় SSKM-এ। চিকিৎসা চলাকালীন বুধবার রাতে শিশুটির মৃত্যু হয়।

এর পরই ক্ষোভ তৈরি হতে থাকে পরিজন ও প্রতিবেশীদের মধ্যে। বৃহস্পতিবার মেচেদায় শিশুটির দেহ দাহ করার পর মিষ্টির দোকানে হামলা করেন পরিবারের লোকজন। ব্যাপক ভাঙচুর হয় মিষ্টির দোকানে। খবর পেয়ে পৌঁছয় কোলাঘাট থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে তারা। যদিও এখনো অভিযোগ দায়ের করেনি কোনও পক্ষই।

 

বন্ধ করুন