বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বাসন্তীর হগোল নদীতে তলিয়ে গেল ২৯টি বাড়ি, দুর্গাপুজোর আগে গ্রামজুড়ে হাহাকার
বাসন্তীর হগোল নদীতে তলিয়ে গেল বাড়ি–ঘর
বাসন্তীর হগোল নদীতে তলিয়ে গেল বাড়ি–ঘর

বাসন্তীর হগোল নদীতে তলিয়ে গেল ২৯টি বাড়ি, দুর্গাপুজোর আগে গ্রামজুড়ে হাহাকার

  • শুক্রবার হগোল নদীতে ধস নামতেই একের পর এক বাড়ি তলিয়ে যেতে শুরু করে।

দুর্গাপুজোর মুখে সর্বস্বান্ত হয়ে পড়ল বেশ কয়েকটি পরিবার। কারণ বাসন্তীর হগোল নদীতে তলিয়ে গেল বাড়ি–ঘর থেকে শুরু করে শেষ সম্বলটুকুও। ধসের দরুণ এই ঘটনা ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বাসন্তীতে। এখানের হগোল নদীতে ধস নেমেছে। তার জেরে তলিয়ে গেল ২৯টি বাড়ি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছেন বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল। তিনি আশ্বাস দিয়েছেন দুর্গতদের।

স্থানীয় সূত্রে খবর, শুক্রবার হগোল নদীতে ধস নামতেই একের পর এক বাড়ি তলিয়ে যেতে শুরু করে। এই ঘটনায় গ্রামবাসীরা ছুটোছুটি করতে শুরু করেন। বাঁধ ভেঙে জল ঢুকতে থাকে গ্রামে। আর তারপর নদীতে তলিয়ে যায় ২৯টি বাড়ি। প্রাণে রক্ষা পেলেও ভেসে গিয়েছে জিনিসপত্র। তাই দুর্গাপুজোর আগে সর্বস্বান্ত ওই পরিবারগুলি।

এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই ঘটনাস্থলে যান প্রশাসনিক আধিকারিকরা। দুর্গতদের দ্রুতই নিয়ে যাওয়া হচ্ছে নিরাপদ আশ্রয়ে। এখনও নদীর পাড়েই রয়েছেন ভিটেহারারা। বিধায়ক শ্যামল মণ্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর দ্রুতই সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। বাঁধ মেরামতি না হওয়ায় এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানাচ্ছেন বাসিন্দারা।

নাগাড়ে বৃষ্টি মাটি আলগা করে দিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তাছাড়া নদীর বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় জল ঢুকেছিল গ্রামে। বানভাসী পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। আর তা কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই নামল ধস। নদীগর্ভে তলিয়ে গেল গ্রামবাসীদের বাড়ি। সহায়সম্বলহীন হয়ে পড়ল গ্রামীণ মানুষজন। দুর্গাপুজোর আগে এখন শুধুই হাহাকার।

বন্ধ করুন