বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > হেমতাবাদে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় বিএসএফের গাফিলতি রয়েছে, অভিযোগ বিধায়কের
করনদিঘীর বিধায়ক গৌতম পাল। নিজস্ব ছবি।
করনদিঘীর বিধায়ক গৌতম পাল। নিজস্ব ছবি।

হেমতাবাদে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় বিএসএফের গাফিলতি রয়েছে, অভিযোগ বিধায়কের

শুক্রবার বাহারাইলে পার্সেল বিস্ফোরণের ঘটনার পর আজ শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন করনদিঘীর বিধায়ক গৌতম পাল।

শুক্রবার পার্সেল বোমা বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদ। এই ঘটনায় আশঙ্কাজনক অবস্থায় চারজনের এখনও চিকিৎসা চলছে স্থানীয় হাসপাতালে। এর সঙ্গে কারা জড়িত তা এখনও জানতে পারেনি পুলিশ। তবে এই ঘটনার জন্য বিএসএফের উদাসীনতা এবং গাফিলতিকেই দায়ী করলেন করনদিঘীর তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক গৌতম পাল। বিএসএফের উদাসীনতা ও গাফিলতির কারণেই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী গ্রাম বাহারাইলে পার্সেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে তিনি অভিযোগ করেছেন।

শুক্রবার বাহারাইলে পার্সেল বিস্ফোরণের ঘটনার পর আজ শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন করনদিঘীর তৃণমূল বিধায়ক গৌতম পাল। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গৌতম পাল বলেন, 'অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী গ্রাম বাহারাইলে সীমান্তে প্রহরায় বিএসএফের নজরদারির অভাব রয়েছে। বিএসএফের কোনও রকমের তৎপরতা দেখতে পাচ্ছি না। এই ঘটনা প্রমাণ করে দিচ্ছে যে বাইরের দুষ্কৃতীরাও এখানে চলে আসতে পারে। সেই সন্দেহও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। আমরা খুবই আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি।'

অন্যদিকে, বিএসএফের এলাকা বৃদ্ধি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'যে সমস্ত বিধানসভা এলাকায় তৃণমূলের প্রাধান্য রয়েছে মূলত সেই এলাকাগুলোতে প্রভাব খাটানোর জন্য বিএসএফের এলাকা বৃদ্ধি করছে কেন্দ্র।'

প্রসঙ্গত,শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে, উত্তর দিনাজপুরের হেমতাবাদ থানা এলাকার বাহারাইলে। আহত চারজনের চিকিৎসা চলছে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজে। এই ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত তা জানতে পুলিশ তদন্ত করছে দ্রুত তাদের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে আশা বিধায়কের।

বন্ধ করুন