বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সংক্রমণ রুখতে রাত্রিকালীন কার্ফু জারি করল মালবাজার পুর কর্তৃপক্ষ
রাত্রীকালীন কার্ফু (‌ছবিটি প্রতীকী সৌজন্য এএনআই)‌
রাত্রীকালীন কার্ফু (‌ছবিটি প্রতীকী সৌজন্য এএনআই)‌

সংক্রমণ রুখতে রাত্রিকালীন কার্ফু জারি করল মালবাজার পুর কর্তৃপক্ষ

  • সন্ধ্যা ৭টা থেকে শুরু করে পর দিন সকাল ৭টা পর্যন্ত মোট ১২ ঘণ্টা চলবে এই ‘‌করোনা কার্ফু’‌। তবে কত দিনের জন্য এই বিধিনিষেধ চলবে, তা পুর কর্তৃপক্ষের তরফে নির্দিষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি।

বেলাগাম হয়ে পড়েছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। তা ভয়াভহ আকার ধারণ করেছে এ রাজ্যে।বেড়েই চলেছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। কলকাতা ছাপিয়ে এখন মারণ ভাইরাস জেলায় জেলায় দাঁত—নোখ ফোটাচ্ছে। ভোটের মরশুমে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ব্যাপক বারে বেড়েছে। এবার মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়া এই সংক্রমণে লাগাম পরাতে উদোগী হল মালবাজার পুরসভা। মঙ্গলবার থেকে রাত্রিকালীন কার্ফুঘোষণা করল মালবাজার পুর কর্তৃপক্ষ।

সন্ধ্যা ৭টা থেকে শুরু করে পর দিন সকাল ৭টা পর্যন্ত মোট ১২ ঘণ্টা চলবে এই ‘‌করোনা কার্ফু’‌। তবে কত দিনের জন্য এই বিধিনিষেধ চলবে, তা পুর কর্তৃপক্ষের তরফে নির্দিষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি।

গত ২৪ ঘণ্টায় মালবাজার শহরে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৯ জন। সোমবারে সংক্রমিত হয়েছিলেন ৩৩ জন। জলপাইগুড়ি জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১৮০ জন। সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতেই মঙ্গলবার রাত থেকে লকডাউন জারি করেছে উদ্বিগ্ন পুর প্রশাসন। সোমবার ও মঙ্গলবার পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিল পুর কর্তৃপক্ষ। তার পরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, লকডাউন চলাকালীন কোনও দোকানপাট খোলা থাকবে না। এমনকী, বাজারে বিনা কারণে বেরনোও যাবে না। অযথা রাস্তাঘাটে ভিড় বাড়ালে, ব্যবস্থা নেবে পুলিশ। লকডাউনের সময় ছাড় থাকবে শুধু মাত্র জরুরি পরিষেবায়। পুরসভার এই সিদ্ধান্তে খুশি স্থানীয় বাসিন্দারা।

বন্ধ করুন