সাঁতার কাটছেন মুকেশ (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)
সাঁতার কাটছেন মুকেশ (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)

গঙ্গায় ১২ কিমি সাঁতার কেটে CAA প্রতিবাদ যুবকের

  • বেলুড় মঠ থেকে সিএএ নিয়ে বার্তা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেজন্যই বেলুড় ঘাট থেকেই সাঁতার শুরু করেন ওই যুবক।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ও জাতীয় নাগরিক পঞ্জির (এনআরসি) প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন অনেকে। এবার জলপথে নয়া আইনের বিরোধিতায় সরব হলেন এক যুবক। বেলুড় থেকে রামকৃষ্ণপুর ঘাট পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার সাঁতার কাটেন তিনি।

আরও পড়ুন : বেলুড়ে পৌঁছে খোশমেজাজে নমো, সন্ন্যাসিদের সঙ্গে মাতলেন আড্ডায়

সদ্য বাংলা চ্যানেল পার করে আসা ওই যুবকের নাম মুকেশ গুপ্ত। তাঁর দাবি, 'বিভিন্ন ধর্মের বন্ধু রয়েছে। সিএএ ও এনআরসি নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন তাঁরা। এটা ভেদাভেদের আইন' তাই সাঁতার কেটে নয়া আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ দেখান মুকেশ।

আরও পড়ুন : ক্রিকেট খেলে বিক্ষোভ, ফের উঠল 'গো ব্যাক মোদী'

কিন্তু বেলুড় ঘাট বেছে নিলেন কেন? মুকেশ জানান, কলকাতা থেকে জলপথে বেলুড়ে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বেলুড় মঠ থেকে সিএএ নিয়ে বার্তা দিয়েছিলেন। সেজন্যই বেলুড় ঘাট থেকেই সাঁতার শুরু করেন তিনি।

আরও পড়ুন : 'বেলুড় মঠকে রাজনীতির মঞ্চ হিসেবে ব্যবহার মোদীর', তোপ বিরোধীদের

কতটা দূরত্ব সাঁতার কাটবেন তা নির্ধারণের পিছনেও কারণ রয়েছে বলে জানান মুকেশ। তিনি জানান, স্বামী বিবেকানন্দরের জন্মদিন তথা ১২ জানুয়ারি বেলুড় মঠে দাঁড়িয়ে সিএএ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন মোদী। সেজন্যই ১২ কিলোমিটার সাঁতার কেটেছেন।

আরও পড়ুন : বেলুড় মঠে মোদীর 'রাজনৈতিক ভাষণ', পাশে নেই ইঙ্গিতে বোঝাল রামকৃষ্ণ মিশন

রবিবার মুকেশের সাঁতারের সময় গঙ্গায় কড়া নজরদারি চালানো হয়। মোতায়েন ছিল রিভার ট্র্যাফিক পুলিশ। লঞ্চে ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা অরূপ রায়। সাঁতারের পথে দু'দিকের পাড়ে জাতীয় পতাকা নেড়ে মুকেশকে শুভেচ্ছা স্থানীয়রা।রামকৃষ্ণঘাটে ওঠার পর তৃণমূলের তরফে মুকেশকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

বন্ধ করুন