বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন যুবকরা, পাহারা বসালেন গ্রামবাসীরা
রাত হলেই এই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বেরিয়ে পড়ছেন যুবকরা। অভিযোগ গ্রামবাসীদের
রাত হলেই এই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বেরিয়ে পড়ছেন যুবকরা। অভিযোগ গ্রামবাসীদের

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন যুবকরা, পাহারা বসালেন গ্রামবাসীরা

  • বিপদ এড়াতে তাই রাতপাহারার ব্যবস্থা করেছেন গ্রামবাসীরা। রোজ সন্ধে ৭টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত চলছে পাহারা।

রাতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বেরিয়ে পড়ছেন ভিনরাজ্য থেকে ফেরা যুবকরা। ঘুরে বেড়াচ্ছে রাস্তায়-বাজারে। তাই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের সামনে পাহারা বসালেন গ্রামবাসীরা। বসিরহাট ১ নম্বর ব্লকের নিমদরিয়া-কোদালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘটনা। 

গত কয়েকদিন বসিরহাট মহকুমাজুড়ে ঝাঁকে ঝাঁকে প্রবাসী শ্রমিক বাড়ি ফিরেছেন। তাঁদের রাখা হয়েছে কোয়াকেন্টাইনে। গ্রামেরই বিভিন্ন স্কুলকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পরিণত করা হয়েছে। কিন্তু গ্রামবাসীদের অভিযোগ, অন্ধকার নামলেই সেখান থেকে বেরিয়ে বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন ভিনরাজ্য থেকে ফেরা যুবকরা। যা থেকে গ্রামে সংক্রমণ ছড়ানোর সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। 

বিপদ এড়াতে তাই রাতপাহারার ব্যবস্থা করেছেন গ্রামবাসীরা। রোজ সন্ধে ৭টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত চলছে পাহারা। প্রতিদিন পাহারায় থাকছেন ৩ জন করে যুবক। কেউ যেন কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বেরোতে না পারে সেদিকে নজর রাখছেন তাঁরা। 

ভিনরাজ্য থেকে ফেরা হাজার হাজার শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে রাজ্য সরকার। কোথাও সরকারি উদ্যোগে আবার কোথায় গ্রামবাসীরাই তাদের খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করছেন। কিন্তু কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বেরিয়ে ঘুরে বেড়ানোর মতো কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজের শাস্তিবিধান হওয়া উচিত বলে মনে করছেন অনেকে। 

 

বন্ধ করুন