ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

করোনামুক্ত হয়ে শ্বশুরবাড়ি গিয়ে স্থানীয়দের বিক্ষোভের মুখে পুলিশকর্মী

  • বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকার মতো আয়োজন না থাকায় শ্বশুরবাড়ি যান তিনি। আর সেখানে গিয়েই বিক্ষোভের মুখে পড়েন পুলিশকর্মী।

ফের একবার অমানবিক কাণ্ডজ্ঞানহীনতা দেখল পশ্চিমবঙ্গ। করোনামুক্ত হয়ে ফেরা পুলিশকর্মীকে শ্বশুরবাড়িতে থাকতে না দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ দেখালেন স্থানীয়। প্রায় আঘ ঘণ্টা চলে পথ অবরোধ। পরে পুলিশ এসে স্থানীয়দের বুঝিয়ে অবরোধ তোলে। ঘটনা উত্তর ২৪ পরগনার গোপালনগরের রামচন্দ্রপুরে। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, গত ৭ মে করোনা আক্রান্ত হন অশোকনগর থানার এক পুলিশকর্মী। তাঁর শ্বশুরবাড়ি গোপালনগরের রামচন্দ্রপুর গ্রামে। করোনা আক্রান্ত পুলিশকর্মীর চিকিৎসা চলছিল বারাসতের কদমগাছির করোনা হাসপাতালে। 

সোমবার তাঁকে করোনামুক্ত ঘোষণা করে ছুটি দিয়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এর পর তাঁকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেন চিকিৎসকরা। কিন্তু বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকার মতো আয়োজন না থাকায় শ্বশুরবাড়ি যান তিনি। আর সেখানে গিয়েই বিক্ষোভের মুখে পড়েন পুলিশকর্মী।

অভিযোগ, ওই ব্যক্তিকে শ্বশুরবাড়িতে থাকতে দেওয়া চলবে না এই দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন একদল স্থানীয় মানুষ। তাদের দাবি, কোনও অবস্থাতেই শ্বশুরবাড়িতে থাকতে দেওয়া চলবে না ওই পুলিশকর্মীকে। তাঁকে বাড়ি ফিরে যেতে হবে। এই দাবিতে গোপালনগর – নহাটা সড়ক অবরোধ করেন তাঁরা। প্রায় ৩০ মিনিট অবরোধ চলার পর পুলিশ বুঝিয়ে অবরোধ তোলে। 

ঘটনায় মানুষের মধ্যে করোনা ভীতি কী ভাবে ছড়িয়েছে তা ফুটে উঠেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের দাবি, আতঙ্কের জেরে দায়িত্বজ্ঞান হারাচ্ছেন মানুষ। আতঙ্ক কাটাতে সচেতনতা প্রচারে জোর দিচ্ছেন তাঁরা। 

 

বন্ধ করুন