বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুভেন্দু অধিকারীকে ফোন প্রশান্তের, শান্তিকুঞ্জে বসেই বার্তা মমতার দূতের
প্রশান্ত কিশোর (ফাইল ছবি)
প্রশান্ত কিশোর (ফাইল ছবি)

শুভেন্দু অধিকারীকে ফোন প্রশান্তের, শান্তিকুঞ্জে বসেই বার্তা মমতার দূতের

  • শুভেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনার মাঝেই তাঁর বাড়িতে গেলেন তৃণমূলের ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর।

শুভেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনার মাঝেই তাঁর বাড়িতে গেলেন তৃণমূলের ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোর। পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথিতে, শুভেন্দুর বাড়ি শান্তিকুঞ্জে যান প্রশান্ত কিশোর–সহ চারজন। তখন শুভেন্দু বা দিব্যেন্দু কেউই বাড়িতে ছিলেন না। পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা তৃণমূল সভাপতি শিশির অধিকারীর সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ কথা বলেন প্রশান্ত কিশোর। গত কয়েক মাস ধরে তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে ছেলে শুভেন্দু অধিকারীর। এই পরিস্থিতিতে বাবা শিশির অধিকারীর সঙ্গে এই বিষয়ে কি কথা হয়েছে তা নিয়ে কেউ মুখ খোলেনি।

তবে সূত্রের খবর, একাধিক কর্মসূচিতে যোগ দেওয়ার জন্য বর্তমানে কাঁথিতে নেই শুভেন্দু অধিকারী। শিশিরবাবুর সঙ্গে শুভেন্দুবাবুকে নিয়েই প্রশান্তের কথা হয়েছে। তবে রাতের দিকে ওই বাড়িতেই শুভেন্দুবাবুর সঙ্গে মোবাইলে কথা বলেন প্রশান্ত। যার একমাত্র সাক্ষী শিশিরবাবু। রাত পৌনে ১০টা নাগাদ অধিকারী বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যান প্রশান্ত। আর গোটা ব্যাপারটিতে সাংবাদিকদের এড়িয়ে গিয়েছেন প্রশান্ত।

জেলা তৃণমূল নেতৃত্বের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই সফর আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করেই। কারণ, বর্তমানে শিশিরবাবু পূর্ব মেদিনীপুরের জেলা তৃণমূল সভাপতি। অন্য একটি সূত্র বলছে, প্রশান্ত কিশোর এদিন শিশিরবাবুর কাছে প্রথমে জানতে চান শুভেন্দু অধিকারী কী বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন?‌ উত্তরে, না শুনতে হয় প্রশান্তকে। তাহলে দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে কেন?‌ উত্তরে, শিশিরবাবু জানান, সেটা শুভেন্দুর সঙ্গে বসেই কথা বলতে হবে। তাঁর কিছু বলার থাকতে পারে। এবার শিশিরবাবু প্রশান্তকে প্রশ্ন করেন, আপনারা কী কখনও শুভেন্দুর কথা শুনতে চেয়েছেন?‌ তারপরই নাকি শুভেন্দুকে ফোন করেন প্রশান্ত। মিনিট পাঁচেক মতো কথা হয় দু’‌পক্ষের মধ্যে।

 

বন্ধ করুন