বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Howrah: বাড়তি ফি নেওয়ার প্রতিবাদে কলেজে বিক্ষোভ ছাত্রীদের, মারধর-ভাঙচুরের অভিযোগ
ছাত্রী বিক্ষোভে উত্তাল হাওড়ার বিজয়কৃষ্ণ গার্লস কলেজ

Howrah: বাড়তি ফি নেওয়ার প্রতিবাদে কলেজে বিক্ষোভ ছাত্রীদের, মারধর-ভাঙচুরের অভিযোগ

  • এই ঘটনা প্রসঙ্গে কলেজের অধ্যক্ষ রুমা ভট্টাচার্য অবশ্য সরাসরি কোনও কিছু বলতে চাননি। তিনি জানান, ‘‌কলেজের একটি ওয়েবসাইট আছে। সেখানেই সব লেখা আছে। ফি সংক্রান্ত সব কিছু।'

‌বাড়তি ফি নেওয়ার প্রতিবাদে হাওড়ার বিজয়কৃষ্ণ গার্লস কলেজে বিক্ষোভ দেখান ছাত্রীরা। ছাত্রীদের মারধর করার অভিযোগ উঠেছে কলেজের অশিক্ষক কর্মীদের বিরুদ্ধে। কলেজে ভাঙচুর চালানোর ঘটনাও ঘটে। দিনভর পঠনপাঠন বন্ধ ছিল কলেজে। শেষ পর্যন্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণে আনে। যদিও পুরো বিষয়টি কলেজের অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে এড়িয়ে গিয়েছেন অধ্যক্ষ রুমা ভট্টাচার্য।

এদিন বাড়তি ফি নেওয়ার প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কলেজ ক্যাম্পাস। ছাত্রীদের অভিযোগ, ‘‌আমরা বি কম পঞ্চম সেমিস্টারের ছাত্রী। অ্যাডমিশনের সময় আমাদের কাছ থেকে ২৯৫০ টাকা নেওয়া হয়েছিল। তখন সেখানে আইটি ফি ও ল্যাব ফি বাবদ ৯০০ টাকা অন্তর্ভূক্ত ছিল। আবার কলেজ কর্তৃপক্ষের দাবি, ফের আরও ৯০০ টাকা দিতে হবে। কিন্তু সেই টাকা আমরা কেন দেব। সিইউয়ের ফর্ম ফিলাপের জন্য ৬২৫ টাকা দিতে রাজি আছি। কিন্তু কেন ৯০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে?‌ এই টাকা আমরা দেব না।’‌ কলেজের আরেক ছাত্রী জানান, ‘‌অধ্যক্ষের কাছে আমরা গিয়েছিলাম। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। কলেজের স্টাফরা আমাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন। অনেকের মোবাইল ছুড়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদেরও বের করে দেওয়া হয়েছে। স্টাফরা ছাত্রীদের থাপ্পর মেরেছে।’‌

এর আগেও বাড়তি ফি নেওয়ার প্রতিবাদে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়-সহ রাজ্যের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনে বসতে দেখা যায় কলেজ পড়ুয়াদের। ফের কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনস্থ একটি কলেজে বাড়তি ফি-র প্রতিবাদে বিক্ষোভ দেখাল ছাত্রীরা। এই ঘটনা প্রসঙ্গে কলেজের অধ্যক্ষ রুমা ভট্টাচার্য অবশ্য সরাসরি কোনও কিছু বলতে চাননি। তিনি জানান, ‘‌কলেজের একটি ওয়েবসাইট আছে। সেখানেই সব লেখা আছে। ফি সংক্রান্ত সব কিছু। আপনারা ওটা দেখে নেবেন। ছাত্রীরা কী বলেছে মিলিয়ে নেবেন। কলেজটা আমার। এখানকার ছাত্রী, স্টাফ সব আমার। আপনারা কি জানেন ওটা অতিরিক্ত ফি?‌’‌

বন্ধ করুন