বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এখনো অধরা অভিযুক্তরা, সোমবারের তাণ্ডবে CBI তদন্তের দাবি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের
সোমবার ভাঙা হচ্ছে পাঁচিল
সোমবার ভাঙা হচ্ছে পাঁচিল

এখনো অধরা অভিযুক্তরা, সোমবারের তাণ্ডবে CBI তদন্তের দাবি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের

  • তাণ্ডবের প্রতিবাদে বুধবার ১২ ঘণ্টার প্রতীকি অনশনে বসবেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য ও অধ্যাপকরা। তবে বুধবার প্রশাসনের ডাকা বৈঠকে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের তরফে কেউ যোগ দেবেন কি না তা জানানো হয়নি বিবৃতিতে।

সোমবারের তাণ্ডবে সিবিআই তদন্তের দাবিতে সরব হল বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার বিকেলে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের তরফে প্রকাশিত এক প্রেস বিবৃতিতে ১১ দফা দাবি পেশ করা হয়েছে। তার মধ্যে প্রধান দাবি, সোমবারের ঘটনার সিবিআই তদন্ত। বিবৃতিতে বুধবার প্রশাসনের তরফে এব্যাপারে যে বৈঠক ডাকা হয়েছে তাতে যোগদানের ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করেনি বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। 

বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, সোমবারের তাণ্ডবের পর নিরাপত্তার অভাব বোধ করছেন বিশ্বভারতীর অধ্যাপক, কর্মী ও তাঁদের পরিবারের সদস্যরা। ২৪ ঘণ্টা কাটলেও গ্রেফতার হয়নি কোনও অভিযুক্ত। 

তাণ্ডবের প্রতিবাদে বুধবার ১২ ঘণ্টার প্রতীকি অনশনে বসবেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য ও অধ্যাপকরা। তবে বুধবার প্রশাসনের ডাকা বৈঠকে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষের তরফে কেউ যোগ দেবেন কি না তা জানানো হয়নি বিবৃতিতে। 

সূত্রের খবর, বুধবারের বৈঠকে থাকবেন না বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও প্রতিনিধি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের দাবি, মুখ্যমন্ত্রী যখন জানিয়েই দিয়েছেন তিনি পাঁচিল দেওয়ার বিরোধী, তখন বৈঠকে যোগদান অনর্থক। 

যে পাঁচিল নিয়ে বিতর্ক তা নিয়েও নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি, চার ফুট উঁচু পাঁচিল দেওয়ার পরিকল্পনা হয়েছে শুধুমাত্র জমি চিহ্নিত করার জন্য। এসে সৌন্দর্যহানির কোনও সম্ভাবনা নেই।

 

বন্ধ করুন