দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

মমতা নয়, তৃণমূলের সম্পদ পিকে, তাই তাঁকে Z শ্রেণির নিরাপত্তা দিচ্ছে রাজ্য: দিলীপ

  • বলে রাখি, সদ্যসমাপ্ত দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে প্রশান্ত কিশোরের হাত ধরে বিজেপিকে রুখে দিয়েছেন কেজরিওয়াল। ওদিকে গত লোকসভা নির্বাচনের পর গণেশ উলটাতে দেখেই প্রশান্ত কিশোরের দ্বারস্থ হয়েছিল তৃণমূল।

তৃণমূলের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোরকে Z শ্রেণির নিরাপত্তা দেওয়ায় তৃণমূলকে আত্রমণ করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বললেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন, এখন তৃণমূলের সব থেকে বড় সম্পদ প্রশান্ত কিশোর। তৃণমূলের সব থেকে বড় ভিআইপি। তাই তাঁকে জেড শ্রেণির নিরাপত্তা দিতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে।

গত ২ ফেব্রুয়ারি প্রশান্ত কিশোরকে Z শ্রেণির নিরাপত্তা দিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল রাজ্য স্বরাষ্ট্র দফতর। সেই বিজ্ঞপ্তির কথা জানা যায় সোমবার। এই নিয়ে রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করে দিলীপবাবু বলেন, ‘তৃণমূলের ছোটখাটো নেতাও পুলিশ নিয়ে ঘোরে। প্রশান্ত কিশোরকে তো নিরাপত্তা দিতেই পারে। ও-ই তো এখন তৃণমূলের সব থেকে বড় ভিআইপি।’

বলে রাখি, সদ্যসমাপ্ত দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে প্রশান্ত কিশোরের হাত ধরে বিজেপিকে রুখে দিয়েছেন কেজরিওয়াল। ওদিকে গত লোকসভা নির্বাচনের পর গণেশ উলটাতে দেখেই প্রশান্ত কিশোরের দ্বারস্থ হয়েছিল তৃণমূল। সেই থেকে প্রশান্ত কিশোরের নির্দেশে চলছে তৃণমূলের বহু কর্মকাণ্ড। প্রতিষ্ঠানবিরোধিতার হাওয়া কাটিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনদরদী মুখ তুলে ধরতে চেষ্টার কসুর করছেন না পিকে।

এদিন দিলীপবাবু প্রশ্ন তোলেন, ‘সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়ার টাকা নেই। দেনায় ডুবে আছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই সেকথা বারবার বলছেন। তার পরও রাজ্যবাসীর করের টাকায় প্রশান্ত কিশোরকে নিরাপত্তা দিচ্ছে রাজ্য সরকার।’



বন্ধ করুন