বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > পশ্চিমবঙ্গে ৭৫ শতাংশ ছাত্রছাত্রী JEE Main পরীক্ষা দিতে পারেননি, দাবি মমতার
বুধবার নবান্নে মমতা
বুধবার নবান্নে মমতা

পশ্চিমবঙ্গে ৭৫ শতাংশ ছাত্রছাত্রী JEE Main পরীক্ষা দিতে পারেননি, দাবি মমতার

  • পরিসংখ্যান দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, পশ্চিমবঙ্গে মোট ৪,৬৫২ জন পরীক্ষার্থী ছিলেন। তার মধ্যে পরীক্ষায় বসতে পেরেছেন মাত্র ১,১৬৭ জন।

পশ্চিমবঙ্গে ৭৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী প্রথম দিন JEE Main পরীক্ষায় বসতে পারেননি। পরীক্ষায় বসেছেন মাত্র ২৫ শতাংশ ছাত্রছাত্রী। বুধবার নবান্নে এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনটাই দাবি করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর দাবি, সবার কথা ভেবে কেন্দ্রের এখনো সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা উচিত। 

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে JEE Main পরীক্ষা। মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, প্রথম দিন পরীক্ষা দিতে পেরেছেন মাত্র ২৫ শতাংশ ছাত্রছাত্রী। বাকি ৭৫ শতাংশ বঞ্চিত হয়েছেন। 

পরিসংখ্যান দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, পশ্চিমবঙ্গে মোট ৪,৬৫২ জন পরীক্ষার্থী ছিলেন। তার মধ্যে পরীক্ষায় বসতে পেরেছেন মাত্র ১,১৬৭ জন।

মমতা বলেন, ‘আমাদের ছাত্রছাত্রীরা খুব সমস্যায় পড়েছে। বহু ছাত্রছাত্রী বঞ্চিত হয়েছে। তারা JEE পরীক্ষায় বসতে পারিনি। তাই আমরা কেন্দ্রকে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে বলেছিলাম। 

মমতা বলেন,  অন্য রাজ্যে ৫০ শতাংশের বেশি ছাত্রছাত্রী পরীক্ষা দিতে পারেনি। যারা পরীক্ষা দিতে পারেনি তাদের জন্য আমার কষ্ট হচ্ছে। কেন্দ্রের নির্দেশ মতো আমরা সমস্ত বন্দোবস্তো করেছি। 

কেন্দ্রকে মমতার প্রশ্ন, পরীক্ষা কয়েকদিন পিছোলে কী মহাভারত অশুদ্ধ হত? এত অহঙ্কার কেন? ছাত্রছাত্রীদের ভবিষ্যৎ নষ্ট করার অধিকার কে দিল?

সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর আবেদন, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন করব, তাদের কোন রাজ্যে কত পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে পেরেছে। যারা পারেনি ও যারা পেরেছে তাদের কথা ভেবে দেখা উচিত।

 

বন্ধ করুন