বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > খাস কলকাতায় মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধাকে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল পুলিশ
ধর্ষণের শিকার হলেন এক মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধা বলে অভিযোগ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
ধর্ষণের শিকার হলেন এক মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধা বলে অভিযোগ। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

খাস কলকাতায় মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধাকে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল পুলিশ

  • এই ঘটনায় চাঞ্চল্য এতটাই ছড়িয়ে পড়েছে যে, তড়িঘড়ি তদন্তে নেমেছে পুলিশ। আর কয়েক ঘন্টার মধ্যে মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও খবর।

নির্মম। নিষ্ঠুর। অমানবিক। এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে কল্লোলিনী কলকাতায়। সদ্য দুর্গাপুজো শেষ হয়েছে। রেশ এখনও কাটেনি। তার মধ্যেই খাস কলকাতায় ধর্ষণের শিকার হলেন এক মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধা বলে অভিযোগ। এই মর্মে চারু মার্কেট থানায় লিখিত অভিযোগ জমা পড়েছে। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য এতটাই ছড়িয়ে পড়েছে যে, তড়িঘড়ি তদন্তে নেমেছে পুলিশ। আর কয়েক ঘন্টার মধ্যে মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও খবর।

ঠিক কী ঘটেছে?‌ এলাকার মানুষজনের সূত্রে খবর, শনিবার সকালে চারু মার্কেট থানা এলাকার বাসিন্দা ৬৫ বছরের বৃদ্ধাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদের দাবি, আজ সকালে ওই বৃদ্ধাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় এলাকারই এক যুবক। তার কিছুক্ষণ পরেই নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। রক্তাক্ত অবস্থায় তিনি বাড়িতে ফিরে আসলে পরিবারের সদস্যরা বাড়ির বাইরে বেরিয়ে জিজ্ঞাসা শুরু করেন। তখনই তাঁরা গোটা ঘটনা জানতে পারেন এবং থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

পুলিশ সূত্রে খবর, নির্যাতিতা একজন মানসিক ভারসাম্যহীন বৃদ্ধা। তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ জমা পড়েছে। নির্যাতিতার বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। তাতে প্রাথমিক অনুমান তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত সুজিত ঘোষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শারীরিক পরীক্ষার জন্য নির্যাতিতাকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ভরদুপুরে ঘটে যাওয়া এই ঘটনা ব্যাপক চাঞ্চল্য বাড়িয়েছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি বর্ধমানে আদিবাসী গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন। এছাড়া জেলায় এমন কয়েকটি ঘটনা চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। কিন্তু খাস কলকাতার পশ এলাকায় এই ঘটনা জোর চর্চার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই অভিযুক্ত যুবককে জেরা করা হচ্ছে। এই ঘটনার পিছনে আরও কেউ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন