বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > উন্নতি হল অরূপ বিশ্বাসের শারীরিক অবস্থার, প্রয়োগ অ্যান্টিবডি ককটেল থেরাপি
বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। 
বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। 

উন্নতি হল অরূপ বিশ্বাসের শারীরিক অবস্থার, প্রয়োগ অ্যান্টিবডি ককটেল থেরাপি

  • রাজ্য মন্ত্রিসভা এবং কলকাতা পুরসভায় ২০২২ সালের শুরুতেই থাবা বসিয়ে দেয় করোনাভাইরাস।

রাজ্যে করোনাভাইরাস রক্তচক্ষু দেখাতেই আক্রান্ত হন বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। এখন তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছে বেসরকারি হাসপাতালটি। কিভাবে তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হল?‌ এই বিষয়ে বেসরকারি হাসপাতাল জানিয়েছে, অ্যান্টিবডি ককটেল থেরাপিতেই অভূতপূর্ব কাজ হয়েছে। চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন অরূপ বিশ্বাস।

রাজ্য মন্ত্রিসভা এবং কলকাতা পুরসভায় ২০২২ সালের শুরুতেই থাবা বসিয়ে দেয় করোনাভাইরাস। তাতেই আক্রান্ত হন বিদ্যুৎমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হতেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে। বিদ্যুৎ মন্ত্রীকে কড়া পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। গঠন করা হয়েছে মেডিক্যাল টিমও। যেখানে রয়েছেন ডা. সপ্তর্ষি বসু–সহ তিন বিশেষজ্ঞ।

এখন রাজ্যের যা পরিস্থিতি তাতে বিকেলে জরুরি বৈঠকে বসবেন মুখ্যসচিব। তারপরই কড়া বিধিনিষেধ জারি হতে পারে ররাজ্যে বলে সূত্রের খবর। এর আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কলকাতার ৪ নম্বর বরো চেয়ারম্যান সাধনা বসু ও বিধায়ক তাপস রায়। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় থেকে চিত্তরঞ্জন ন্যাশানাল হাসপাতালের অধ্যক্ষ অজয় রায়। আর শনিবারই অরূপ বিশ্বাস আক্রান্ত হন।

উল্লেখ্য, বড়দিনের পর থেকেই করোনাভাইরাস রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ে। তারপর তা লাগাম ছাড়ায় বর্ষবরণের রাত থেকে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, ছাত্র দিবস থেকে দুয়ারে সরকারের কর্মসূচি স্থগিত করে দিতে হয় রাজ্য সরকারকে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কলকাতা পুলিশের একাধিক কর্তাও। জয়েন্ট সিপি ক্রাইম, ডিসি ট্রাফিক এবং অ্যাডিশনাল সিপি–সহ মোট ৫০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন।

বন্ধ করুন