বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Beleghata ID hospital: বাড়ছে করোনা, চিকিৎসক চেয়ে স্বাস্থ্য ভবনকে চিঠি দিল বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল
বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের প্রধান ফটক। ফাইল ছবি

Beleghata ID hospital: বাড়ছে করোনা, চিকিৎসক চেয়ে স্বাস্থ্য ভবনকে চিঠি দিল বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল

  • গত চার জুলাই চিকিৎসক এবং ক্রিকেটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ চেয়ে স্বাস্থ্য ভবনকে আরও একটি চিঠি লিখেছে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যদিও এখনও স্বাস্থ্য ভবনের তরফে হাসপাতালকে কিছু জানানো হয়নি। করোনা চিকিৎসার ক্ষেত্রে রাজ্যের অন্যতম সেরা হাসপাতাল হিসেবে পরিচিত বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল।

রাজ্যে বাড়ছে করোনা। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যাও উত্তরোত্তর বাড়ছে। কিন্তু, রোগীর সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে চিকিৎসক এবং নার্স না থাকায় উদ্বিগ্ন বেলেঘাটা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এই পরিস্থিতিতে হাসপাতালে অতিরিক্ত চিকিৎসক এবং নার্স চেয়ে স্বাস্থ্য ভবনের কাছে ফের চিঠি লিখল বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, গত দু মাসের মধ্যে এ নিয়ে চিকিৎসক এবং নার্স চেয়ে দু’বার চিঠি পাঠিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এর আগে গত মাসে ১৮ জন চিকিৎসক এবং নার্স চেয়ে স্বাস্থ্য ভবনকে চিঠি লিখেছিল হাসপাতাল। গত চার জুলাই চিকিৎসক এবং ক্রিকেটিক্যাল কেয়ার বিশেষজ্ঞ চেয়ে স্বাস্থ্য ভবনকে আরও একটি চিঠি লিখেছে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যদিও এখনও স্বাস্থ্য ভবনের তরফে হাসপাতালকে কিছু জানানো হয়নি। করোনা চিকিৎসার ক্ষেত্রে রাজ্যের অন্যতম সেরা হাসপাতাল হিসেবে পরিচিত বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল। রাজ্যে প্রথম করোনা চিকিৎসা শুরু হয়েছিল এই হাসপাতালে।

বেলেঘাটা আইডিতে চিকিৎসক এবং নার্সের ঘাটতি যে রয়েছে তা কার্যত স্বীকার করে নিয়েছেন হাসপাতালের অধ্যক্ষ অনীমা হালদার। তিনি বলেন, ‘রাজ্যে প্রতিদিন করোনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে রোগী সংখ্যাও বাড়ছে। নতুন করে কোভিড বাড়ার ফলে কোভিড ওয়ার্ড চালু হয়েছে। কিন্তু রোগীকে পরিষেবা দেওয়ার জন্য পর্যাপ্ত চিকিৎসক, সিনিয়র রেসিডেন্ট বা মেডিক্যাল অফিসারের অভাব রয়েছে। তাই স্বাস্থ্য ভবনের কাছে আবেদন জানানো হয়েছে।’

এ বিষয়টি নিয়ে চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা দেবাশীষ ভট্টাচার্য। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বুধবার পর্যন্ত হাসপাতালে ২০ জনের বেশি রোগী ক্রিটিকাল কেয়ারে ভর্তি রয়েছেন। সেই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। কিন্তু, এই বিভাগে পর্যাপ্ত চিকিৎসক না থাকার ফলে চিকিৎসা পরিষেবা দিতে সমস্যা হচ্ছে বলে জানা চিকিৎসকরা।

বন্ধ করুন