বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ট্যাংরায় বিজেপি নেতাকে বাঁশ, বন্দুকের বাঁট দিয়ে মারধর, অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের
ট্যাংরায় বিজেপি নেতাকে বাঁশ, বন্দুকের বাঁট দিয়ে মারধর, অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)
ট্যাংরায় বিজেপি নেতাকে বাঁশ, বন্দুকের বাঁট দিয়ে মারধর, অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই)

ট্যাংরায় বিজেপি নেতাকে বাঁশ, বন্দুকের বাঁট দিয়ে মারধর, অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের

  • আক্রান্তের নাম রাজু চৌধুরী। বেলেঘাটা দক্ষিণ মণ্ডলের বিজেপি’‌র সহ–সভাপতি।

বিজেপি নেতাকে মারধরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠল ট্যাংরা। অভিযোগ, এই ঘটনার নেপথ্যে রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। যদিও এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করেনি শাসকদল। তবে এখনও লিখিত অভিযোগ দায়েরও হয়নি। অভিযোগ, অনেকদিন ধরেই এই বিজেপি নেতাকে টার্গেট করা হয়েছিল। 

দলীয় সূত্রে খবর, আক্রান্তের নাম রাজু চৌধুরী। বেলেঘাটা দক্ষিণ মণ্ডলের বিজেপি’র সহ–সভাপতি। অভিযোগ, সোমবার রাতে আচমকাই একদল যুবক চড়াও হয় তাঁর উপর। বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় তাঁকে। আর বন্দুকের বাঁট দিয়েও মারা হয়। ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয় তাঁর চোখ। তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করে ভরতি করা হয় নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে।

স্থানীয় বিজেপি নেতাদের অভিযোগ, পরিকল্পনামাফিক তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই হামলা করা হয়েছে। যদিও এই প্রসঙ্গে মুখ খোলেননি শাসক দলের নেতারা। গোটা ঘটনাটি জানিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করবেন আক্রান্ত রাজু। উত্তর কলকাতা জেলার নেতারা সেখানে তাঁকে দেখতে যান। তাঁর উপর এই আক্রমণের জবাব দেওয়া হবে বলে জানান উত্তর কলকাতার বিজেপির এক শীর্ষ নেতা।

উল্লেখ্য, রবিবার রাতে মালদহ ও আসানসোলের দুই বিজেপি নেতাকে গুলি করার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মালদহের ওই নেতাকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হওয়ায় আসানসোলের বিজেপি নেতার কোনও ক্ষতি হয়নি। নদিয়ায় তৃণমূল নেতাকে আক্রমণের অভিযোগ ওঠে বিজেপি’র বিরুদ্ধে।

বন্ধ করুন