বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Bowbazar:‌ পুলিশ ঘিরে ফেলল গোটা এলাকা, কাঠগড়ায় মেট্রো কর্তৃপক্ষ
এলাকা পুলিশ ঘিরে রেখেছে।
এলাকা পুলিশ ঘিরে রেখেছে।

Bowbazar:‌ পুলিশ ঘিরে ফেলল গোটা এলাকা, কাঠগড়ায় মেট্রো কর্তৃপক্ষ

  • মেট্রোর কাজের জন্যই ক্ষতি হয়েছে। তাই মেট্রো কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, তারা এলাকাবাসীদের হোটেলে রাখার বন্দোবস্ত শুরু করেছে। রাতে এলাকার বহু বাসিন্দাই ব্যাগে দরকারি জিনিসপত্র নিয়ে রাসতায় বেরিয়ে পড়েন। অনেকেই হোটেলে আশ্রয় নেন।

প্রায় আড়াই বছর পর আবার বউবাজার এলাকায় ফিরল পুরনো আতঙ্ক। মেট্রো রেলের কাজ চলাকালীন বউবাজারের বাড়িগুলিতে ফের ফাটল দেখা দিল। তার জেরে আতঙ্কে বাড়ি ছেড়ে চলে যাচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। আড়াই বছর আগেও একই কারণে বাড়ি ছাড়তে হয়েছিল বহু মানুষকে। বৃহস্পতিবার সকালে দুর্গা পিতুরি লেন এলাকা পুলিশ ঘিরে রেখেছে। ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে ফেলা হয়েছে। এমনকী মেট্রো রেলের কাজও বন্ধ রাখা হয়েছে।

ঠিক কী ঘটেছে বউবাজারে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, মেট্রোর কাজ চলাকালীন বুধবার রাতে কমপক্ষে ১০টি বাড়িতে ফাটল দেখা দেয়। বাড়িগুলির পাশাপাশি রাস্তাতেও ফাটল ধরেছে। ফলে আতঙ্কে বাড়ি ছাড়তে শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মেঝেতে, দেওয়ালেও ফাটল দেখা যায়। ছাত্রছাত্রীদের দাবি, সামনে পরীক্ষা। বাড়ি ছেড়ে কোথায় যাব বুঝতে পারছি না।

মেট্রো রেল কী ব্যবস্থা নিচ্ছে?‌ মেট্রোর কাজের জন্যই ক্ষতি হয়েছে। তাই মেট্রো কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, তারা এলাকাবাসীদের হোটেলে রাখার বন্দোবস্ত শুরু করেছে। রাতে এলাকার বহু বাসিন্দাই ব্যাগে দরকারি জিনিসপত্র নিয়ে রাসতায় বেরিয়ে পড়েন। অনেকেই হোটেলে আশ্রয় নেন। জিএম(অ্যাডমিন) কেএমআরসিএল একে নন্দী সংবাদমাধ্যমকে জানান, একাধিক বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে। আমাদের ইঞ্জিনিয়াররা গিয়েছেন। বাড়িগুলি ছাড়ার জন্য বলা হয়েছে। তাদের আপাতত হোটেলে রাখা হচ্ছে।

স্থানীয় কাউন্সিলর কী বলছেন?‌ এই বিষয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর বিশ্বরূপ দে বলেন, ‘‌আমি যেটুকু খবর পেয়েছি তাতে বিকেলে অল্প ফাটল ছিল। সন্ধ্যের পর থেকে ফাটল বেড়েছে। অন্তত ১০–১২টি বাড়িতে ফাটল দেখা দিয়েছে। রাস্তাতেও ফাটল ধরেছে। আমি বুঝতে পারছি না, ২০১৯ সালে এত বড় বিপর্যয়ের পর, কাজ হচ্ছে অথচ সাইটে কেউ নেই। তাদের ইঞ্জিনিয়ারের তো ২৪ ঘণ্টা থাকা উচিত! মেট্রো কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।’‌ পুলিশ এবং কলকাতা পুরসভার কর্মীরা মাইকে প্রচার করে ফাটল ধরা বাড়িগুলির বাসিন্দাদের বাইরে বেরিয়ে আসতে অনুরোধ করেন।

বন্ধ করুন