ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

এই প্রথম পয়লা বৈশাখের আগের দিন মা কালীর বাড়ি যেতে পারব না, আমার খারাপ লাগে না?

  • এদিন মমতা বলেন, টআমি প্রতি নববর্ষের আগের দিন মা কালীর বাড়ি যাই। কিন্তু বলুন তো, আমি লোককে বলব ঘর থেকে না বেরোতে আর নিজে কী করে যাব?

লকডাউনের মধ্যে পয়লা বৈশাখ বাড়ির ভিতরে পালনের আবেদন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যা। শনিবার নবান্নের সাংবাদিক বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গবাসীকে এই অনুরোধ জানান তিনি। সঙ্গে বলেন, ‘এই প্রথম পয়লা বৈশাখের আগের দিন আমি মা কালীর বাড়ি যেতে পারব না। আমার কি খারাপ লাগছে না?’

হাতে গোনা আর কয়েকটা দিন। তার পরই বাঙালির নিজস্ব উৎসব পয়লা বৈশাখ। করোনার লকডাউনের জেরে আগেই মাটি হয়েছে চৈত্র সেলের বাজার। শনিবার লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণার পর পয়লা বৈশাখেও গৃহবন্দি থাকতে হবে বাঙালিকে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যবাসীকে সমবেদনা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন মমতা বলেন, টআমি প্রতি নববর্ষের আগের দিন মা কালীর বাড়ি যাই। কিন্তু বলুন তো, আমি লোককে বলব ঘর থেকে না বেরোতে আর নিজে কী করে যাব? আমার খারাপ লাগছে না? এই প্রথম আমার জীবনে আমি পয়লা বৈশাখের আগের দিন মা কালীর বাড়ি যেতে পারছি না। আমি মায়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়ে যখন সব ভাল হয়ে যাবে তখনই যাব। কিন্তু লোককে আমি বলব করতে আর আমি নিজে করব না, এটা হয় না।‘

মুখ্যমন্ত্রীর আহ্বান, ‘যার যা আরাধনা করতে হয় বাড়ি বসে করুন। গণপতির পুজো করতে হয় বাড়িতে করুন।‘

রাজ্যবাসীকে সতর্ক করে মমতা বলেন, ‘ঘরে যদি আগুন লাগে আমার ঘরটা যদি পুরো পুড়ে যায় তখন নতুন করে তৈরি করতে একটু টাইম লাগে। এখন তো একটা রোগের আগুন লেগেছে। এটা দুঃস্বপ্নের আগুন। এটাকে আমাদের নেভাতে হবে।‘



বন্ধ করুন