বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > স্কুলের সিলেবাসে করোনা,খুঁটিনাটি উল্লেখ করা হচ্ছে পাঠক্রমে,কোন ক্লাসের জন্য ?
ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

স্কুলের সিলেবাসে করোনা,খুঁটিনাটি উল্লেখ করা হচ্ছে পাঠক্রমে,কোন ক্লাসের জন্য ?

  • স্কুলের পাঠক্রমের মধ্যে করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত তথ্য যুক্ত করার বিষয়টিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন শিক্ষাবিদরাও।

করোনা কী আর করোনা হলে কী হয় গত দুবছর ধরে এই দুটি প্রশ্নের উত্তর জেনে গিয়েছেন অনেকেই। বলা ভালো হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন আমজনতা। কিন্তু এর সঙ্গেই করোনা নিয়ে বিভ্রান্তিও কিছু কম নেই। এনিয়ে নানা ভ্রান্ত ধারণাও রয়েছে। তবে সেই করোনাই এবার পাঠ্যবইতে। সিলেবাসে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে করোনা সংক্রান্ত পাঠক্রম। চলতি শিক্ষাবর্ষেই একাদশ শ্রেণির পাঠক্রমে এই করোনা বিষয়ক নানা তথ্য যুক্ত করা হয়েছে। মধ্যশিক্ষা পর্ষদ সূত্রে জানা গিয়েছে একাদশ শ্রেণির শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক অংশে এই অংশটি যুক্ত হয়েছে। করোনা ভাইরাসের চরিত্র কী রকম, করোনাভাইরাসে কীভাবে সংক্রামিত হয় এসব তথ্যই উল্লেখ করা হয়েছে এই পাঠক্রমে। 

অন্যদিকে পর্ষদ সূত্রে খবর, শুধু নবম শ্রেণির পাঠক্রমেই নয়, আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে ষষ্ঠ শ্রেণির পাঠক্রমেও করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য সংযুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে। করোনা থেকে দূরে থাকার জন্য় কোন কোন বিধি মেনে চলা দরকার সেটাও উল্লেখ করা হবে ষষ্ঠ শ্রেণির পাঠক্রমে। তবে শুধু করোনা নয়, ম্যালেরিয়ার সহ অন্যান্য মশাবাহিত রোগও সম্পর্কেও বিষেষ তথ্য পাঠক্রমের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে।

তবে স্কুলের পাঠক্রমের মধ্যে করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত তথ্য যুক্ত করার বিষয়টিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন শিক্ষাবিদরাও। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরাও এই উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়েছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতে, করোনাকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের চলতে হবে। সেক্ষেত্রে কিশোর বয়স থেকে এই রোগ সম্পর্কে সচেতন হওয়া দরকার। স্কুলের পাঠক্রমেই এই রোগের নানা দিক অন্তর্ভুক্ত হলে আখেরে জনগোষ্ঠী উপকৃত হবে।

 

বন্ধ করুন