বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কেরলে খুন করে অবৈধভাবে সীমানা পারাপার, বাংলাদেশি নাগরিককে সাজা দিল আদালত
ভারতীয় নাগরিককে খুনের অভিযোগ। প্রতীকী ছবি।

কেরলে খুন করে অবৈধভাবে সীমানা পারাপার, বাংলাদেশি নাগরিককে সাজা দিল আদালত

  • মামলার বয়ান অনুযায়ী, মামুনের বিরুদ্ধে ২ টি মামলা রয়েছে। একটি হল খুনের মামলা এবং অন্যটি হল অবৈধ অনুপ্রবেশের মামলা। ওই যুবক কাজের উদ্দেশ্যে কেরলে গিয়েছিলেন। ২০১৭ সালে ওই যুবক তিনি সেখানে এক যুবককে খুন করেন বলে অভিযোগ। 

কেরলে এক ভারতীয় যুবককে খুন করে অবৈধভাবে ভারত-বাংলাদেশ সীমানা পার করার অপরাধে এক বাংলাদেশি নাগরিককে দোষী সাব্যস্ত করল আদালত। অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় ওই বাংলাদেশি নাগরিককে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিল আদালত। বাংলাদেশি ওই নাগরিকের নাম আল মামুন। বালুরঘাট জেলা আদালতের ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ মামলাটি চলছিল। গতকাল আদালতের বিচারক রিম্পা রায় অপরাধীকে দোষী সাব্যস্ত করেন। আজ ৫ বছরের সাজা ঘোষণা করেন। সাজার পাশাপাশি ১০ হাজার টাকা জরিমানা করছে আদালত। অনাদায়ে আরও ৬ মাস জেলে থাকতে হবে অপরাধীকে।

মামলার বয়ান অনুযায়ী, মামুনের বিরুদ্ধে ২ টি মামলা রয়েছে। একটি হল খুনের মামলা এবং অন্যটি হল অবৈধ অনুপ্রবেশের মামলা। ওই যুবক কাজের উদ্দেশ্যে কেরলে গিয়েছিলেন। ২০১৭ সালে ওই যুবক তিনি সেখানে এক যুবককে খুন করেন বলে অভিযোগ। এরপর হিলি সীমান্ত পার করে ওই যুবক বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তখনই সীমান্তরক্ষী বাহিনীর হাতে ধরা পরে যান মামুন। খুনের অভিযোগে মামুনকে নিজেদের হেফাজতে নেয় কেরল পুলিশ। এরপর থেকেই তিনি কেরলের ত্রিশূরে বন্দি রয়েছেন।

তারপর থেকেই দুটি মামলার শুনানি চলছিল। যারমধ্যে অবৈধ অনুপ্রবেশের মামলাটি চলছিল বালুরঘাট আদালতে। আপাতত একটি মামলার মীমাংসা হল। তবে খুনের মামলাটির এখনও মীমাংসা হয়নি। সেটি এখনও কেরলের আদালতে চলছে। জানা গিয়েছে, ওই বাংলাদেশি নাগরিককে এদিন কেরলের আদালতে খুনের মামলার সুত্রে তোলা হয়েছিল। এখনও কেরলের আদালতে সেই মামলার রায় ঘোষণা করা হয়নি।

 

বন্ধ করুন