বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > হেস্টিংসে সুলভ শৌচালয়ে যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, বাড়িতে সুইসাইড নোট, রহস্য
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

হেস্টিংসে সুলভ শৌচালয়ে যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, বাড়িতে সুইসাইড নোট, রহস্য

  • প্রাথমিক অনুমান, দীর্ঘদিন কাজ না থাকায় মানসিক অবসাদে গলায় ক্ষুর চালিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন ওই যুবক। দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই বোঝা যাবে মৃত্যুর আসল কারণ।

ফুলবাগানের পর হেস্টিংস। এবার এক সুলভ শৌচালয় থেকে উদ্ধার হল যুবকের রক্তাক্ত মৃতদেহ। মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে হেস্টিংস থানা এলাকার ক্যানেল রোডে। রাতেই ঘটনাস্থলে তদন্তে আসে পুলিশ। দেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে আত্মহত্যা বলে মনে হলেও ঘটনাকে ঘিরে দানা বেঁধেছে রহস্য

পুলিশ জানিয়েছে, মৃতের নাম দশরথ মল্লিক (‌৩৩)‌। মঙ্গলবার রাতে এলাকার ওই সুলভ শৌচালয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন পরিবারের লোকজন। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশকে খবর দেন তাঁরা। ঘটনাস্থলে এসে দেহর পাশ থেকে একটি ক্ষুর উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃতের গলায় ক্ষতচিহ্ন রয়েছে।

পুলিশ আধিকারিকরা জানিয়েছেন, মৃত যুবকের বাড়ির ভেতর থেকে একটা সুইসাইড নোট পাওয়া গিয়েছে। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে হেস্টিংস থানার পুলিশ। তাঁদের প্রাথমিক অনুমান, দীর্ঘদিন কাজ না থাকায় মানসিক অবসাদে গলায় ক্ষুর চালিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন ওই যুবক। দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলেই বোঝা যাবে মৃত্যুর আসল কারণ।

উল্লেখ্য, সোমবার ফুলবাগান মেট্রো স্টেশনের কাছ থেকে এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। তাঁর গলা, মুখ, কানের কাছে ও মাথায় একাধিক আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়। এই বিভৎস খুনের ঘটনাকে ঘিরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার সিসি টিভি ফুটেজ খতিয়ে তদন্তে শুরু করে পুলিশ। ২ যুবককে গ্রেফতারও করা হয়েছে। তবে ফুলবাগানের ঘটনার সঙ্গে হেস্টিংসের ঘটনার কোনও যোগ নেই বলেই মত পুলিশের।

বন্ধ করুন