বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'মুখার্জি পাড়া তো ব্যানার্জি পাড়া হয়ে গেল, টাকার গাছ আছে নাকি?' তোপ দিলীপের
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

'মুখার্জি পাড়া তো ব্যানার্জি পাড়া হয়ে গেল, টাকার গাছ আছে নাকি?' তোপ দিলীপের

  • কারোর সন্দেহ হলে তদন্ত হওয়া উচিত। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ছেলের সম্পত্তি প্রসঙ্গে দাবি দিলীপ ঘোষের

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ছেলের সম্পত্তি থেকে করোনার টিকা নানা বিষয় নিয়ে মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ খুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ছেলের সম্পত্তি বৃদ্ধি প্রসঙ্গে এদিন তিনি বলেন, ‘অমিত শাহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এত বড় নেতা। তাঁর ছেলের কথা তো সবাই জানে। তিনি লুকিয়ে কিছু করেন না। তথ্য় দিয়েছেন। কারোর সন্দেহ হলে তদন্ত হওয়া উচিত। কিন্তু  মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন,পরীক্ষা দেওয়ার ফিজ দেওয়ার জন্য তাঁর কাছে নাকি টাকা ছিল না। গয়নাগাটি বিক্রি করে নাকি দিয়েছিলেন। আজ তাঁর ভাই ভাইপোদের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি। মুখার্জি পাড়াটা ব্যানার্জি পাড়া হয়ে গেল। গাছ আছে নাকি? ১২ কোটি টাকার বাড়িতে থাকবেন।’

 

দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘গণতন্ত্রের চারটি স্তম্ভ নড়বড়ে হয়ে গিয়েছে। বিশ্বভারতীর ভিসিকে দিনরাত আটকে রাখা হচ্ছে। খেতে দেওয়া হচ্ছে না। তবু তিনি বল প্রয়োগ করেননি। আদালত যা নির্দেশ দিয়েছেন সেই মতো করেছেন।ডিকি খুলে দেখা হচ্ছে তিনি পালাচ্ছেন কিনা। শিক্ষাঙ্গন পুরো গুন্ডামির আর রাজনীতির আখড়া হয়ে গিয়েছে। এটা বন্ধ হওয়া দরকার আছে। ’

টিকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কেন রাজ্যে সকলে টিকা পেলেন না? পার্টির সঙ্গে থাকলে টিকা পাওয়া যাবে। টিকার জন্য সুইসাইড পর্যন্ত করতে হচ্ছে। দুর্গাপুরে টিকার লাইনে অপমানিত হয়ে দুর্গাপুর ব্যারাজ থেকে এক মহিলা ঝাঁপ দিয়েছিলেন। ছাত্রদের টিকা পাওয়া উচিত।’ 

 

পাশাপাশি তাঁর প্রশ্ন,' শিক্ষকদের কেন রাস্তায় থাকতে হচ্ছে? এটাই আজ বাস্তব চিত্র। শোভন দেব কুলীন ব্রাহ্মণ। তাঁর এমন অবস্থা কেন হল ভাবুন।' মমতা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'আমার মনে হয় মুখ্যমন্ত্রী আইনের উপরে চলে গিয়েছেন। সেকারনে তাঁর মূর্তি তৈরি হচ্ছে পুজো করার জন্য। ' 

 

বন্ধ করুন