বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > করোনায় একঘেষেমি কাটিয়ে পড়ুয়াদের মনোবল বাড়াতে আয়োজন ক্যারাটে প্রতিযোগিতার
করোনায় একঘেষেমি কাটিয়ে পড়ুয়াদের মনোবল বাড়াতে আয়োজন ক্যারাটে প্রতিযোগিতার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)
করোনায় একঘেষেমি কাটিয়ে পড়ুয়াদের মনোবল বাড়াতে আয়োজন ক্যারাটে প্রতিযোগিতার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক)

করোনায় একঘেষেমি কাটিয়ে পড়ুয়াদের মনোবল বাড়াতে আয়োজন ক্যারাটে প্রতিযোগিতার

  • করোনা আবহে বাড়ি থেকে বেরোতে পারছে না স্কুল পড়ুয়ারা। অনলাইন ক্লাস করে তারা ক্লান্ত। এই পরিস্থিতিতে স্কুল পড়ুয়াদের জন্য সারা রাজ্য ক্যারাটে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হল।

করোনাভাইরাস আবহে বাড়ি থেকে বেরোতে পারছে না স্কুল পড়ুয়ারা। অনলাইন ক্লাস করে তারা ক্লান্ত। এই পরিস্থিতিতে স্কুল পড়ুয়াদের জন্য রাজ্যজুড়ে ক্যারাটে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। উদ্যোক্তা পূর্ব কলকাতার সেন্ট ফ্রান্সিস অ্যাকাডেমি। এই অনলাইন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেছিল রাজ্যের ১২ টি জেলার ২৩৪ জন ছাত্রছাত্রী। 

উদ্যোক্তাদের বক্তব্য, এই ক্যারাটে প্রতিযোগিতার মধ্যে দিয়ে স্কুল পড়ুয়াদের মন ভালো হয়ে যায়। শারীরিক কসরতে একঘেয়েমি কেটে যায়। জেক্যান শিতোরু ক্যারাটে দ্য অ্যাসোসিয়েশন ইন্ডিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। বিচারক ছিলেন এশিয়ান ক্যারাটে ফেডারেশনের জয়ন্ত কর্মকার ও ওই প্রতিষ্ঠানের ১০ জন জাতীয় সদস্য। তাঁদের দাবি, এই ক্যারাটে এখন ছেলেমেয়ে সবার শেখা উচিত। তাহলে আত্মরক্ষার ক্ষেত্রে একটা কবচ হয়ে থাকবে এই শিক্ষা।

এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সেন্ট ফ্রান্সিস অ্যাকাডেমির প্রিন্সিপ্যাল ফাদার রেমিশ এক্কা। তিনি বলেন, ‘‌অতিমারী পরিস্থিতিতে ছাত্রছাত্রীদের মনোবল বাড়াতেই এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল।’‌ একদিকে করোনা আবহে সাময়িক স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন ছাত্রছাত্রীরা। অন্যদিকে মানসিক শক্তি পেল তারা এই ক্যারাটে প্রতিযোগীতার মধ্যে দিয়ে।

বন্ধ করুন