বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > আট তলার বাড়ির সমান পাটের ব্যাগ, বিশ্বরেকর্ড তৈরি কলকাতার
আট তলার বাড়ির সমান পাটের ব্যাগ, বিশ্বরেকর্ড তৈরি কলকাতার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)
আট তলার বাড়ির সমান পাটের ব্যাগ, বিশ্বরেকর্ড তৈরি কলকাতার। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

আট তলার বাড়ির সমান পাটের ব্যাগ, বিশ্বরেকর্ড তৈরি কলকাতার

  • ১৯ জনের দলে সামিল ছিলেন সংশোধনাগারের কর্মী, দুঃস্থ মহিলা ও যুবক, যুবতিরা।

পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বড় পাটের ব্যাগ তৈরি করে গিনিস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়লেন চৈতালি দাস। সবুজ, সুস্থ পরিবেশ গড়ে তোলার বার্তা দিতেই এই ব্যাগ তৈরি করেন তিনি। চৈতালি দাস অবশ্য একা হাতে এই ব্যাগ তৈরি করেননি। ১৯ জনের একটি দল মিলে এই পাটের ব্যাগ বানান। শুক্রবার সেন্ট থমাস স্কুলের মাঠে এই ব্যাগ সকলের সামনে তুলে ধরা হয়।

চারিদিকে এখন পলিথিনের রমরমা। কিন্তু এই উপাদান পরিবেশের পক্ষে অত্যন্ত ক্ষতিকারক। তুলনায় অনেক বেশি পরিবেশ বান্ধব পাটের ব্যাগ। পরিবেশ বাঁচাতে, পরিবেশ সংরক্ষণে সচেতনতা গড়ে তুলতে, পাটজাত দ্রব্য জনপ্রিয় করে তুলতে, ভারতীয় পাটের মান ও কর্মীদের কাজ বিশ্বের মানুষের কাছে তুলে ধরতে ৮০ ফুট/ ১০০ ফুটের একটি পাটের ব্যাগ তৈরির পরিকল্পনা করেন চৈতালী দাস। পাটজাত দ্রব্যের পুনরুজ্জীবনের জন্য দীর্ঘ দিন ধরেই কাজ করছেন চৈতালি।

সমাজের বিভিন্ন স্তরের মোট ১৯ জন মানুষকে নিয়ে এই বিশাল আকারের ব্যাগ তৈরি করেন চৈতালি। ১৯ জনের দলে সামিল ছিলেন সংশোধনাগারের কর্মী, দুঃস্থ মহিলা ও যুবক, যুবতিরা। এশিয়ার সবচেয়ে পুরনো স্কুল খিদিরপুরের সেন্ট থমাস স্কুলের মাঠে এই ব্যাগ তৈরির কাজ শুরু হয়। টানা পাঁচদিনের পরিশ্রমে তৈরি হয় আট তলা সমান উঁচু এই ব্যাগ। ব্যাগের দৈর্ঘ্য ২৪.৮৭ মিটার, প্রস্থ ৩০.৬৮ মিটার।

ব্যাগ তৈরির পর শুক্রবার বিকেলে স্কুলের মাঠেই তা প্রদর্শন করা হয়। প্রদর্শনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধন হয় কলকাতা পুলিশের পাইপ ব্যান্ডের বাজনার মাধ্যমে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দরের চেয়ারম্যান বিনীত কুমার। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল জুট বোর্ডের কমিশনার মলয় চন্দন চক্রবর্তী, কারেকশনাল সার্ভিসের এডিজি-আইজি পীযূষ পান্ডে, সেন্ট থমাস স্কুলের সেক্রেটারি জন ঘোষ।

বন্ধ করুন