বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > পেট্রোপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি মমতার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি।  (ANI)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি।  (ANI)

পেট্রোপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি মমতার

  • পালটা প্রতিক্রিয়ায় বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, জ্বালানি তেল বা গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে কেন্দ্রের তেমন হাত থাকে না। কেন্দ্র কখনো চায় না দাম বাড়ুক।

রান্নার গ্যাসের দাম বাড়তেই ফের পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে টুইট করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার জোড়া টুইটে রান্নার গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবি জানালেন তিনি। পালটা বিজেপির কটাক্ষ, অত উদ্বিগ্ন হলে কেন পেট্রোপণ্যে নিজেদের কর প্রত্যাহার করছে না রাজ্য সরকার?

এদিন টুইটে মমতা লেখেন, ‘বিজেপি সরকারের জনবিরোধী রূপ আমাকে বেদনাদীর্ণ করে। আমরা পেট্রোল, ডিজেল, রান্নার গ্যাস, জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির সাক্ষী হয়েছি। যার ফলে আমাদের জনতার ওপর প্রবল চাপ পড়ছে। এই পরিস্থিতি একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয় ও ক্ষমার অযোগ্য। আমি প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করব, দয়া করে আমাদের উদ্বেগকে গুরুত্ব দিয়ে পদক্ষেপ করুন। দ্রুত বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার করুন।’

পালটা প্রতিক্রিয়ায় বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, জ্বালানি তেল বা গ্যাসের দাম বৃদ্ধিতে কেন্দ্রের তেমন হাত থাকে না। কেন্দ্র কখনো চায় না দাম বাড়ুক। তা সত্বেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লাগাতার এই নিয়ে রাজনীতি করছেন। ওনার উদ্বেগ আসলে কুম্ভীরাশ্রু। এত উদ্বিগ্ন হলে পেট্রোপণ্যে রাজ্য সরকারের করের অংশ তিনি মকুব করছেন না কেন?

বলে রাখি, বুধবার থেকে দেশ জুড়ে ২৫ টাকা করে বেড়েছে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম। যার জেরে এরাজ্যে ৯০০ টাকা পার করেছে ঘরোয়া রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম।

 

বন্ধ করুন