বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে চুরি যাচ্ছে মৃত করোনা রোগীদের মোবাইল ফোন
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে চুরি যাচ্ছে মৃত করোনা রোগীদের মোবাইল ফোন

  • করোনা ওয়ার্ডের ভিতরে রোগীর আত্মীয়দের প্রবেশ নিষেধ। ফলে যোগাযোগ রাখতে ভরসা মোবাইল ফোন। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে রোগীর মৃত্যুর পর চুরি হয়ে যাচ্ছে সেই ফোনও।

বেডের জন্য দালালদের তোলাবাজির পর এবার আরও নৃশংসতার অভিযোগ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের করোনা হাসপাতালের কর্মীদের একাংশের বিরুদ্ধে। ওই হাসপাতালে মৃত এক তরুণীর বাবার দাবি, মেয়ের মৃত্যুর পর থেকে তাঁর একটি দামি মোবাইল ফোন মিলছে না। বিস্তর জলঘোলার পর মঙ্গলবার পুলিশে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। 

গত ১৮ মে মেডিক্যাল কলেজে করোনা আক্রান্ত অবস্থায় মৃত্যু হয় হাওড়ার শ্যামপুরের বাসিন্দা এক তরুণীর। অভিযোগ, মৃত্যুর পর তাঁর ২টি মোবাইল ফোনই গায়েব হয়ে যায়। মাসখানেকের ছোটাছুটির পর মঙ্গলবার ২টি ফোনের একটি ফেরত পান তিনি। আরেকটি দামি ফোন এখনো গায়েব। 

করোনা ওয়ার্ডের ভিতরে রোগীর আত্মীয়দের প্রবেশ নিষেধ। ফলে যোগাযোগ রাখতে ভরসা মোবাইল ফোন। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে রোগীর মৃত্যুর পর চুরি হয়ে যাচ্ছে সেই ফোনও। 

তরুণীর বাবার কথায়, ‘মেয়েকে তো হারিয়েছি। কিন্তু মানুষ যে এত নির্মম ও লোভী হতে পারে তা ভেবে মনুষ্যত্বের ওপর থেকে বিশ্বাস উঠে যাচ্ছে। কী ভাবে কেউ মৃত ব্যক্তির সরঞ্জাম চুরি করতে পারেন? এরা কি মানুষ?’

বলে রাখি, শুধু মোবাইল ফোন নয়, হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ড থেকে মৃত ব্যক্তিদের অন্যান্য সামগ্রীও চুরি হচ্ছে বলে অভিযোগ। মেয়ের মোবাইল ফোন ফেরত চেয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। 

বন্ধ করুন