বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > Fertilizer black marketing: সারের কালোবাজারি রুখতে নজরদারির নির্দেশ নবান্নের, কড়া পদক্ষেপের বার্তা মন্ত্রীর

Fertilizer black marketing: সারের কালোবাজারি রুখতে নজরদারির নির্দেশ নবান্নের, কড়া পদক্ষেপের বার্তা মন্ত্রীর

সারের কালোবাজারি রুখতে নবান্নের নির্দেশ। প্রতীকী ছবি (HT_PRINT)

রাজ্য জুড়ে যেভাবে সারের কালোবাজারির অভিযোগ উঠেছে তাতে রাজ্য সরকারের অনুমান, এর সঙ্গে শুধু সারের ব্যবসায়ীরাই নন, দফতরের নিচতলার কর্মীরাও জড়িত রয়েছেন। তাই সে বিষয়ে কৃষি দফতরকে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। কৃষি মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ইতিমধ্যে এ বিষয়ে একাধিক অভিযোগ পেয়েছেন।

রেশন দুর্নীতিতে এখন তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। সেই আবহে আলু ও সবজি চাষের মরশুমে সারের ব্যাপক কালোবাজারির অভিযোগ উঠেছে। দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে শুরু করে বাঁকুড়া সহ বিভিন্ন জেলায় নির্ধারিত মূল্যের অনেক বেশি দামে সার বিক্রি করছেন ব্যবসায়ীরা। যার ফলে ব্যাপক সমস্যায় পড়েছেন চাষিরা। ইতিমধ্যে বিরোধীরা সারের কালোবাজারি নিয়ে সরব হয়েছেন। সেক্ষেত্রে তারা দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন। এই অবস্থায় সারের কালোবাজারি আটকাতে তৎপর হল নবান্ন। আলু চাষের প্রয়োজনীয় পটাশ সারের কালোবাজারি যাতে কোনওভাবেই না হয় সে বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সতর্ক করেছেন নবান্ন। এছাড়াও, কোথাও কালোবাজারির অভিযোগ পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আধিকারিকদের নির্দেশ দিয়েছে নবান্ন।

আরও পড়ুন: দিনাজপুরে সারের 'কালোবাজারি', ৬২ জনকে শোকজ, পুলিশ ও TMC-কে দোষারোপা BJP-র

রাজ্য জুড়ে যেভাবে সারের কালোবাজারির অভিযোগ উঠেছে তাতে রাজ্য সরকারের অনুমান, এর সঙ্গে শুধু সারের ব্যবসায়ীরাই নন, দফতরের নিচতলার কর্মীরাও জড়িত রয়েছেন। তাই সে বিষয়ে কৃষি দফতরকে বিশেষ নজর দিতে বলা হয়েছে। কৃষি মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ইতিমধ্যে এ বিষয়ে একাধিক অভিযোগ পেয়েছেন। তার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি জানিয়েছেন, এই দুর্নীতি রুখতে আগামী দিনে আরও কড়া পদক্ষেপ করা হবে। রাজনৈতিক মহলের মতে, একের পর এক দুর্নীতিতে বিদ্ধ রাজ্য সরকার। এই অবস্থায় সারের কালোবাজারির ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন কৃষকরা। যেহেতু আগামী বছর লোকসভা নির্বাচন রয়েছে ফলে সারের কালোবাজারি নিয়ে চাষিদের মধ্যে প্রভাব পড়তে পারে বলে।

প্রসঙ্গত, রাজ্য সরকারের অভিযোগ, এই সময় যে পরিমাণ সার সরবরাহের কথা তার চেয়ে অনেক কম সার সরবরাহ করেছে কেন্দ্র। এই অবস্থায় সারের ঘাটতি মেটাতে কেন্দ্র সহ সার উৎপাদক সংস্থাগুলিকে ইতিমধ্যেই অনুরোধ জানিয়েছে রাজ্য সরকার। তাছাড়া, রাজ্যের অভিযোগ আগে পটাশ সারের ক্ষেত্রে কেন্দ্রের ভর্তুকি ছিল ২২ টাকা। এখন তা সামান্যই বেড়েছে। ইতিমধ্যেই সারের কালোবাজারি রুখতে অভিযান চালাচ্ছে প্রশাসন। বহু সার ব্যবসায়ীকে ইতোমধ্যেই শোকজ করেছে কৃষি দফতর। এছাড়াও অনেক ব্যবসায়ীকে সার বিক্রি না করার নোটিশ দেওয়া হয়েছে।এই সময় সাধারণত এনপিকে সারে চাহিদা বেশি থাকে। যার ফলে এই সময় এই সারের দাম বৃদ্ধি পায়। তাই সারের দাম নিয়ন্ত্রণে ব্যাবসায়ীদের বিকল্প সার বিক্রিরও পরামর্শ দিয়েছে কৃষি দফতর। এর পাশাপাশি কৃষকদেরও সচেতন করা হচ্ছে।

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

পাকিস্তান সফরে যাবেন না গ্রিন! ভারতের বিরুদ্ধে গেমপ্ল্যান তৈরি করছে অস্ট্রেলিয়া ইজরায়েলে আছড়ে পড়া মিসাইলে নিহত ১ ভারতীয়, আহত ২, হামলার নেপথ্যে কারা? অর্ধেক টুর্নামেন্ট শেষে WPL-এর কমলা টুপি রয়েছে মন্ধনার মাথায়, দৌড়ে রয়েছেন কারা? তামিলনাড়ু হারতেই ক্যাপ্টেনের ওপর দায় চাপালেন কোচ, এসব কী চলছে, সরব কার্তিক অর্জুন সিংয়ের টিকিট ঠেকাতে পথে নামল সোমনাথ শ্যাম, ব্যারাকপুর জুড়ে তোলপাড় পথবাতিকে সঙ্গী করে পড়াশোনা চলছিল মেয়েটির, তিন ঘণ্টায় বিদ্যুৎ পৌঁছে দিলেন অরূপ নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করতে না পারলে বদলি, কড়া বার্তা দিল নির্বাচন কমিশনের ফুলবেঞ্চ নতুন করে ৪% DA বাড়ছে এই রাজ্য সরকারি কর্মীদের! টুইট করে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী স্বর্ণেন্দুকে রেজিস্ট্রি, নতুন ফ্ল্যাট! এবার ৫ বছরের জন্মদিন পালন ‘পাখি’ শ্রুতির ফ্রান্সই প্রথম গর্ভপাতের অধিকারকে দিল সাংবিধানিক বৈধতা, নারীর অধিকারে নয়া নজির

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.