বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ব্যক্তিগত আক্রোশেই খুনের চেষ্টা মন্ত্রী জাকির হোসেনকে, চার্জশিটে উল্লেখ করল NIA
মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশন। পাশে, দুর্ঘটনার আগের মুহূর্তে জাকির হোসেন। ফাইল ছবি
মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশন। পাশে, দুর্ঘটনার আগের মুহূর্তে জাকির হোসেন। ফাইল ছবি

ব্যক্তিগত আক্রোশেই খুনের চেষ্টা মন্ত্রী জাকির হোসেনকে, চার্জশিটে উল্লেখ করল NIA

  • এই ঘটনার তদন্তে প্রথমে গ্রেফতার করা হয় এক বাংলাদেশি যুবককে। বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই বিস্ফোরণে ভিনরাজ্যের জঙ্গিগোষ্ঠীর হাত থাকতে পারে বলেও অনুমান করা হয়।

নিমতিতা কাণ্ডে আদালতে চার্জশিট পেশ করল NIA. এই ঘটনায় আবদুল সামাদ ও শহিদুল ইসলাম নামে দুই ব্যক্তিতে প্রধান অভিযুক্ত করা হয়েছে। এদের মধ্যে শহিদুল ইসলামই আক্রোশের জেরে মন্ত্রী জাকির হোসেনকে খুনের চেষ্টা করেছিলেন বলে চার্জশিটে জানিয়েছে NIA.

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশনে কলকাতাগামী ট্রেন ধরতে আসার সময় ভয়াবহ বিস্ফোরণে আহত হন রাজ্যের তৎকালীন শ্রম প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। সঙ্গে আরও আহত হন অন্তত ২৩ জন। বিস্ফোরণে মন্ত্রীর ২টি আঙুল মারাত্মকভাবে জখম হয়। পরদিনই ঘটনায় CID তদন্তের নির্দেশ দেয় রাজ্য সরকার। তদন্তে নেমে ঘটনাস্থল খতিয়ে দেখেন DIG CID অনুজ শর্মা।

এই ঘটনার তদন্তে প্রথমে গ্রেফতার করা হয় এক বাংলাদেশি যুবককে। বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই বিস্ফোরণে ভিনরাজ্যের জঙ্গিগোষ্ঠীর হাত থাকতে পারে বলেও অনুমান করা হয়। কিন্তু পরে জানা যায় অন্য তথ্য।

এই ঘটনার তদন্তভার হাতে নেয় NIA. তদন্তে নেমে শহিদুল নামে সুতির বাসিন্দা এক দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করেন গোয়েন্দারা। জানা যায়, সীমান্তবর্তী ওই এলাকায় নানা জিনিস পাচারের সঙ্গে যুক্ত সে। তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ দায়ের করেছিলেন জাকির সাহেব। যার জেরে অধিকাংশ সময় এলাকা ছাড়া থাকতে হত তাঁকে। সেই প্রতিহিংসার জেরে জাকির সাহেবকে খুনের ষড়যন্ত্র করে সে।

এদিন ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা চার্জশিটে শহিদুল ছাড়াও তাঁর সহযোগী আবদুল সামাদ নামে এক অভিযুক্তকে প্রধান অভিযুক্ত করেছে NIA. এছাড়া ১৭৩ জন সাক্ষীর উল্লেখ করেছেন তদন্তকারীরা।

বন্ধ করুন