বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কালীপুজোয় বাজি নিষিদ্ধ করা হোক, কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হল জনস্বার্থ মামলা
বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে জনস্বার্থ মামলা হল কলকাতা হাইকোর্টে। । (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে জনস্বার্থ মামলা হল কলকাতা হাইকোর্টে। । (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

কালীপুজোয় বাজি নিষিদ্ধ করা হোক, কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হল জনস্বার্থ মামলা

  • ২০২০ সালে করোনাভাইরাসের জেরে বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট।

কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে দুর্গাপুজো হতে চলেছে কোভিড–বিধি মেনে। দুর্গাপুজো শুরু হতে হাতে এখনও তিনদিন বাকি। কিন্তু এবার কালীপুজোয় বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে জনস্বার্থ মামলা হল কলকাতা হাইকোর্টে। আর এই মামলা দায়েরের অনুমতি দিল বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। ২০২০ সালে করোনাভাইরাসের জেরে বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট।

অবকাশকালীন বেঞ্চ যদি বাজি পোড়ানোর উপর নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে তাহলে এই বছরও বাজি পোড়ানো যাবে না। বাজি পোড়ালে তার থেকে ধোঁয়া বের হয়। তাতে অনেকেরই নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হয়। তাছাড়া এখনও করোনাভাইরাস দুর্বল হয়নি। তাই বাজি নিষিদ্ধ করা হোক বলে জনস্বার্থ মামলার হলফনামায় উল্লেখ করা হয়েছে।

কলকাতা হাইকোর্ট সূত্রে খবর, বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায় মামলাটি শুনবেন বলে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিনও ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দালের কাছে এই মামলা শোনার অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। আজ বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মুখোপাধ্যায়ের কাছে মামলা শোনার অনুমতি মিলল। আগামী সপ্তাহে এই মামলা শুনানির সম্ভাবনা।

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই অনির্দিষ্টকালের জন্য ময়দানের বাজি বাজার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কারণ বাজি বিক্রি করে মুনাফা করা যাচ্ছে না। ২০২০ সালেও বলা হয়েছিল, বাজিও ফাটানো যাবে না কালীপুজোয়। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ ছিল কোনও বাজি বিক্রিও করা যাবে না। রাজ্যজুড়ে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল বাজি। এবারও সেই নির্দেশই বহাল থাকে কি না সেটাই দেখার।

বন্ধ করুন