বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > যোগ্য আবেদনকারীরা আদৌ প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন তো? তথ্য সংগ্রহ করবে রাজ্য
দুয়ারে সরকারের ক্যাম্প (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য এএনআই)

যোগ্য আবেদনকারীরা আদৌ প্রকল্পের সুবিধা পাচ্ছেন তো? তথ্য সংগ্রহ করবে রাজ্য

  • স্বনির্ভর গোষ্ঠীর উপরেও জোর দিচ্ছেন মুখ্য সচিব। নতুন করে পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য স্বনির্ভর গোষ্ঠীর জন্য প্রয়োজনে শিবিরে আলাদা কাউন্টার খোলার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

দুয়ারে সরকারে প্রচুর মানুষের ভিড় হয়। কিন্তু, কারা আসছেন তা জানা প্রয়োজন। রাজ্য সরকার চাইছে একটি অভিন্ন তথ্যভান্ডার মজুদ করতে। সেই কারণে এবার থেকে দুয়ারে সরকারের শিবিরে মানুষের সমস্ত ধরনের তথ্য সংগ্রহ করার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকারের। বিশেষ করে পরিবারের আর্থিক পরিস্থিতি, কোন জাতি বা লিঙ্গ এই সমস্ত তথ্য সংগ্রহ করার পরিকল্পনা রয়েছে। এ নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার জেলাশাসকের নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্য সচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

প্রশাসনিক সূত্রে জানা যাচ্ছে, এরকমভাবে তথ্য ভান্ডার মজুদ করা সম্ভব হলে যোগ্য আবেদনকারীরা সরকারি প্রকল্পগুলির সুবিধা পাচ্ছেন কিনা তা জানা সম্ভব হবে। সেইজন্য শিবিরে কারা আসছেন সে বিষয়টা জানা খুবই প্রয়োজন। বৃহস্পতিবার বৈঠকে একাধিক বিষয়ে জেলাশাসকের সঙ্গে আলোচনা করেছেন মুখ্য সচিব। এই ভার্চুয়াল বৈঠকে তথ্য সংগ্রহ ছাড়াও পড়ুয়াদের স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড এবং মৎস্যজীবীদের কার্ড তৈরির উপর জোর দিয়েছেন মুখ্য সচিব। প্রয়োজনে এর জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসনকে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলতে হবে। এছাড়াও রাজ্যের অর্থ সচিব মনোজ পন্থ নিজেও ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবেন।

অন্যদিকে, স্বনির্ভর গোষ্ঠীর উপরেও জোর দিচ্ছেন মুখ্য সচিব। নতুন করে পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য স্বনির্ভর গোষ্ঠীর জন্য প্রয়োজনে শিবিরে আলাদা কাউন্টার খোলার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

অনেকক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে লক্ষী ভান্ডারের টাকা একই আবেদনকারীর অ্যাকাউন্টে বহুবার ঢুকেছে। সে বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি আবাস যোজনায় এখনও পর্যন্ত কতজন আবেদন করেছেন? তাদের মধ্যে কতজনের পাকা বাড়ি রয়েছে সে সমস্ত খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও প্রশাসন সূত্রে খবর।

বন্ধ করুন