বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > টিয়ার গ্যাস গান কিনতে উদ্যোগ রাজ্য পুলিশের, বাড়তি চাহিদা কেন?‌ জানুন

টিয়ার গ্যাস গান কিনতে উদ্যোগ রাজ্য পুলিশের, বাড়তি চাহিদা কেন?‌ জানুন

টিয়ার গ্যাস গান

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর স্পষ্ট নির্দেশ দেন কোনওভাবেই পুলিশ যেন বন্দুকের–গুলি ব্যবহার না করে। পুলিশকে আরও মানবিক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

রাজ্যে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে বিরোধীরা। তাতে রাজ্যের শান্তি–আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত হচ্ছে। এমনকী পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট–পাটকেল পর্যন্ত ছোড়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। তার জেরে আহত হচ্ছেন পুলিশ কর্মীরা। শহর থেকে জেলা—সর্বত্র এই চিত্র দেখা যাচ্ছে। বেশিরভাগ সময়েই তাদের আন্দোলন শান্তিপূর্ণ থাকছে না। এই পরিস্থিতি দেখে টিয়ার গ্যাস গান কেনার উপর জোর দিচ্ছে রাজ্য পুলিশ।

কেন টিয়ার গ্যাস গান কিনতে হচ্ছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, বিক্ষোভরত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস ব্যবহার করতে হয়। আন্দোলনের নামে যে বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে তা মোকাবিলা করতে টিয়ার গ্যাস অত্যন্ত জরুরি। জলকামানের ব্যবহারও করছে রাজ্য পুলিশ। একদিকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেওয়া অন্যদিকে আহত না করা। এই দুই কাজ একসঙ্গে করতে গেলে টিয়ার গ্যাসই উপযুক্ত বিকল্প। তাই টিয়ার গ্যাস গান কেনার উপর জোর দিচ্ছে রাজ্য পুলিশ।

ঠিক কী নির্দেশ রয়েছে?‌ নবান্ন সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় আসার পর স্পষ্ট নির্দেশ দেন কোনওভাবেই পুলিশ যেন বন্দুকের–গুলি ব্যবহার না করে। পুলিশকে আরও মানবিক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। তাই ডিউটিতে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে যাওয়া নিষিদ্ধ হয়েছে। বিক্ষোভকারীদের সরাতে বেশি করে ব্যবহার করা হচ্ছে জলকামান এবং টিয়ার গ্যাস।

টিয়ার গ্যাসের প্রয়োজন পড়ছে কেন? সূত্রের খবর,‌ দু’‌তিন মাসে আইনশৃঙ্খলা রক্ষার ডিউটির পরিমাণ বেড়ে গিয়েছে। তাই টিয়ার গ্যাস পাঠাতে হচ্ছে। আর কাঁদানে বন্দুকের অনেক ক্ষেত্রে টানাটানি থাকছে। সেই কারণে সিদ্ধান্ত হয় টিয়ার গ্যাস কেনার। আপাতত ৫০০টি টিয়ার গ্যাস গান কেনার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এই নিয়ে রাইফেল ফ্যাক্টরির সঙ্গে কথা হয়েছে পুলিশ কর্তাদের।

বন্ধ করুন