বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > চাকরির সিন্ডিকেট পার্থকে দিয়েছিলেন মমতা, মালের দায়িত্ব আরোহীকেই নিতে হবে
রাজভবনের সামনে শুভেন্দু অধিকারী। ফাইল ছবি

চাকরির সিন্ডিকেট পার্থকে দিয়েছিলেন মমতা, মালের দায়িত্ব আরোহীকেই নিতে হবে

  • তিনি আরও বলেন, ‘ মুখ্যমন্ত্রীর এসব কথা কেউ বিশ্বাস করবে না। ২০২১ সালের ভোটে মুখ্যমন্ত্রী পাড়ায় পাড়ায় হেলিকপ্টার নিয়ে ঘুরে বলেছেন, কেউ কিচ্ছু নয়, সবাই ল্যাম্প পোস্ট। ২৯৪টাতেই মমতা ব্যানার্জি দাঁড়িয়েছে। অর্থাৎ মালের দায়িত্ব এখন আরোহীকে নিতেই হবে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দুর্নীতিতে তাঁর বা তৃণমূলের কোনও যোগ নেই বলে মুখ্যমন্ত্রীর দাবিকে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বুধবার নবনিযুক্ত রাজ্যপাল লা গণেশনের সঙ্গে দেখা করে রাজভবনের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি দাবি করেন, চাকরির সিন্ডিকেটটা পার্থকে দিয়ে রেখেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন শুভেন্দু বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী তো এই দুর্নীতিগ্রস্ত মন্ত্রীদের বহিষ্কার করার সুপারিশ করতে পারেন। কিন্তু করবেন না। কেন করবেন না সেটা ময়নাগুড়ির প্রাক্তন বিধায়ক অনন্তদেব অধিকারী গতকাল বলেছেন। উনি বলেছেন, চাকরির সিন্ডিকেটটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দিয়ে চালাতেন। অনন্তদেব অধিকারী যখন ছেলের জন্য চাকরি চাইতে গেছে তখন মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, অনন্তদা আমাকে না বলে পার্থদাকে দিয়ে দেন। আমি পার্থদাকে বলে দেব। অপা সিন্ডিকেট যে আসলে পিসি - ভাইপোর সিন্ডিকেট এটা সবাই জানে। আমি রাজ্যপালকে বলেছি আপনি মুখ্যমন্ত্রীকে উপদেশ দিন যাতে উনি এই দুর্নীতিগ্রস্ত লোকেদের মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কার করে’।

তিনি আরও বলেন, ‘ মুখ্যমন্ত্রীর এসব কথা কেউ বিশ্বাস করবে না। ২০২১ সালের ভোটে মুখ্যমন্ত্রী পাড়ায় পাড়ায় হেলিকপ্টার নিয়ে ঘুরে বলেছেন, কেউ কিচ্ছু নয়, সবাই ল্যাম্প পোস্ট। ২৯৪টাতেই মমতা ব্যানার্জি দাঁড়িয়েছে। অর্থাৎ মালের দায়িত্ব এখন আরোহীকে নিতেই হবে। এখন অস্বীকার করলে কিছু হবে না’।

এমনকী সব ক্ষেত্রে দুর্নীতি ধরা পড়লেই মুখ্যমন্ত্রী নিজেকে আড়াল করার চেষ্টা করেন বলে দাবি করে শুভেন্দু বলেন, ‘গোটা রাজ্যে তার এত সম্পত্তি। এটা প্রমাণ হওয়ার পরেও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে তো মুখ্যমন্ত্রী কোনও ব্যবস্থা নেননি। এটা ওনার একটা চাল। সব সময় এটা উনি করতে চান, আমি ভালো অন্যরা খারাপ’।

 

বন্ধ করুন