বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কড়া পদক্ষেপ তৃণমূলের, সুনীল মণ্ডলের সাংসদ পদ খারিজ করার দাবিতে লোকসভায় চিঠি
লোকসভা। ইনসেটে, সাংসদ সুনীল মণ্ডল। ফাইল ছবি
লোকসভা। ইনসেটে, সাংসদ সুনীল মণ্ডল। ফাইল ছবি

কড়া পদক্ষেপ তৃণমূলের, সুনীল মণ্ডলের সাংসদ পদ খারিজ করার দাবিতে লোকসভায় চিঠি

  • বিশেষজ্ঞদের মতে, সাংসদ সুনীল মণ্ডলের বিরুদ্ধে এই দলত্যাগ বিরোধী আইন প্রয়োগ করার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হবে না। কারণ, লোকসভায় তৃণমূলের সাংসদ সংখ্যা এখন ২২।

দলত্যাগ বিরোধী আইন প্র‌য়োগ করা হোক সুনীল মণ্ডলের বিরুদ্ধে। খারিজ করা হোক তাঁর সাংসদ পদ— এই মর্মে লোকসভার স্পিকারকে চিঠি দিলেন তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। গত মাসেই মেদিনীপুরের জনসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের হাত ধরে বিজেপি–তে যোগ দিয়েছিলেন বর্ধমান পূর্বের সাংসদ সুনীল মণ্ডল। ঘাসফুল শিবির ছেড়ে পদ্মফুল শিবিরে গেলেও তিনি তাঁর সাংসদ পদ প্রত্যাহার করেননি। এবার তাঁর সাংসদ পদ খারিজ করার দাবি জানিয়ে লোকসভায় চিঠি দিল তৃণমূল।

জানা গিয়েছে, সোমবার লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লাকে চিঠি দিয়ে তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় আবেদন করেছেন যাতে তৃণমূলত্যাগী সাংসদ সুনীল মণ্ডলের বিরুদ্ধে দলত্যাগ বিরোধী আইন প্রয়োগ করা হয়। এবং তার সঙ্গে তাঁর সাংসদ পদ খারিজ করা হোক। বোঝাই যাচ্ছে এই চিঠি দিয়ে রাজ্যের শাসকদল বার্তা দিতে চাইছে যে তারা সুনীল মণ্ডলের বিরুদ্ধে কঠোরতম ব্যবস্থা নিতে চাইছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সাংসদ সুনীল মণ্ডলের বিরুদ্ধে এই দলত্যাগ বিরোধী আইন প্রয়োগ করার ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হবে না। কারণ, লোকসভায় তৃণমূলের সাংসদ সংখ্যা এখন ২২। লোকসভায় এক–তৃতীয়াংশের বেশি সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে এমন কোনও দলে যদি সুনীল মণ্ডল যেতেন তবে তাঁর সাংসদ পদ খারিজ করা যেত না। যেহেতু সুনীল মণ্ডল একা দল ছেড়ে গিয়েছেন তাই তাঁর ক্ষেত্রে এই আইন প্রয়োগ করা যেতেই পারে।

বন্ধ করুন