বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > 'সিপিআইএম-কংগ্রেসের মতো নয় BJP', মোকাবিলায় নয়া 'পড়ুয়াদের' ক্লাস নেবে তৃণমূল
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য সমীর জানা/হিন্দুস্তান টাইমস)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (ফাইল ছবি, সৌজন্য সমীর জানা/হিন্দুস্তান টাইমস)

'সিপিআইএম-কংগ্রেসের মতো নয় BJP', মোকাবিলায় নয়া 'পড়ুয়াদের' ক্লাস নেবে তৃণমূল

বিজেপি যে বাম ও কংগ্রেসের মতো আচরণ করবে না, সেই বিষয়েও নব নির্বাচিত বিধায়কদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

এবারেই প্রথম রাজ্য বিধানসভায় বিরোধী দল হিসাবে বিজেপি উঠে এসেছে। কিন্তু বিজেপির সঙ্গে যাতে ঠিকভাবে মোকাবিলা করা যায়, সেজন্য নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়কদের প্রশিক্ষণ দিলেন দলের বর্ষীয়ান নেতারা। সেই সঙ্গে বিজেপি যে বাম ও কংগ্রেসের মতো আচরণ করবে না, সেই বিষয়েও নব-নির্বাচিত বিধায়কদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।

এবারেই প্রথম রাজ্য বিধানসভায় বিরোধী দল হিসাবে বিজেপি উঠে এসেছে। কিন্তু বিজেপির সঙ্গে যাতে ঠিকভাবে মোকাবিলা করা যায়, সেজন্য নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়কদের প্রশিক্ষণ দিলেন দলের বর্ষীয়ান নেতারা। সেই সঙ্গে বিজেপি যে বাম ও কংগ্রেসের মতো আচরণ করবে না, সেই বিষয়েও নব-নির্বাচিত বিধায়কদের সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে।|#+|

জানা গিয়েছে, এদিন সকাল সাড়ে ১০টায় শোকপ্রস্তাবের পর মুলতুবি হয়ে যায় বিধানসভার অধিবেশন। তারপরেই বেলা ১২টায় বিধানসভা ভবনের নৌসার আলি কক্ষে শুরু হয় তৃণমূলের নব নির্বাচিত বিধায়কদের ক্লাস। এদিন তৃণমূলের নব-নির্বাচিত বিধায়কদের স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, এবারে বিরোধীরা অনেক অশান্তি করবে। বিরোধীরা কিছু বললেই উত্তেজিত হবেন না। নিজে থেকে কোনও বিধায়ক প্রতিবাদ করবেন না। দল নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত কিছু বলবেন না। প্রতিবাদ যদি করতেই হয়, তাহলে সংসদীয় নিয়ম নীতি মেনে করতে হবে। একই সঙ্গে দলীয় নেতৃত্বের তরফে জানানো হয়েছে, বিধানসভার নিয়ম কানন নিয়ে প্রত্যেক বিধায়ককে সচেতন থাকতে হবে। বিধানসভায় বিজেপি বিধায়কদের আচরণ আগ্রাসী ছিল বলে এদিন প্রত্যেক বিধায়ককে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। এদিন তৃণমূল বিধায়কদের বলা হয়, বিধানসভা অধিবেশন বিজেপি বিধায়করা ভুণ্ডুল করার চেষ্টা করবে। কিন্তু তারমধ্যে থেকেই কীভাবে হাউজের বিজনেস বের করে নিতে হবে, সে বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। আগে বাম ও কংগ্রেস বিধায়করা বিধানসভা থেকে ওয়াক-আউট করলেও পরে বিষয় নিয়ে বিধানসভায় আলোচনা করত। কিন্তু বিজেপি কিন্তু বিধানসভায় কোনও আলোচনা করবে না।

এদিন তৃণমূলের তরফ থেকে প্রত্যেক বিধায়ককে বিধানসভায় হাজির থাকার কথা জানানো হয়েছে। মন্ত্রী হোন বা বিধায়ক, প্রত্যেককে বিধানসভায় নিয়মিত হাজিরা দিতে হবে। শাসক দলের তরফে সেইমতো হুইপ জারি করা হয়েছে। এর আগে গত শনিবার বিজেপির তরফে নব-নির্বাচিত বিধায়কদের ক্লাস নেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এবার তৃণমূলের তরফেও নব নির্বাচিত বিধায়কদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হল।

বন্ধ করুন