বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > চার সংখ্যায় নামার মুখে রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ, অ্যাক্টিভ কেস কমল প্রায় ৮ হাজার
প্রতীকি ছবি (PTI)
প্রতীকি ছবি (PTI)

চার সংখ্যায় নামার মুখে রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ, অ্যাক্টিভ কেস কমল প্রায় ৮ হাজার

  • সোমবারের বুলেটিন অনুসারে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৩১ জনের। এর মধ্যে কলকাতায় ২৮ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৩৩ জন ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার ফলে মোট মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ১৫,৫৪১।

ধারা অব্যহত রেখে পশ্চিমবঙ্গের করোনা গ্রাফ নিম্নমুখি রইল সোমবারও। এদিন রাজ্যে করোনার নতুন সংক্রমণের সংখ্যা নেমে এল ১০ হাজারের কাছে। সঙ্গে লক্ষ্যনীয় ভাবে কমল দৈনিক মৃত্যুও। নতুন রেকর্ড করল অ্যাক্টিভ কেস হ্রাসের সংখ্যা। 

সোমবার ছিল মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের কর্মজীবনের শেষ দিন। রাজ্য প্রশাসনের প্রধান হিসাবে প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সামলেছেন তিনি। এরই মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছেন তাঁর ভাই অঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়। আর প্রশাসক হিসাবে বিদায়ের দিনে রাজ্যে সংক্রমণের সংখ্যা পৌঁছল ১০ হাজারের কাছে। 

রবিবার সকাল ৯টা থেকে সোমবার সকাল ৯টা পর্যন্ত রাজ্যে মোট ১০,১৩৭ জন করোনা রোগীর খোঁজ মিলেছে। তবে এদিন পরীক্ষা হয়েছে কম। মোট ৫৯ হাজার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে গত ২৪ ঘণ্টায়। রাজ্যের প্রায় সমস্ত জেলায় সংক্রমণের সংখ্যা নিম্নগামী। মোট সংক্রমণ বেড়ে হয়েছে ১৩,৭৬,৩৭৭। এদিন রাজ্যে সংক্রমণের হার ছিল ১৭.২২ শতাংশ। 

সোমবারের বুলেটিন অনুসারে রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১৩১ জনের। এর মধ্যে কলকাতায় ২৮ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৩৩ জন ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। যার ফলে মোট মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ১৫,৫৪১।

এদিন রাজ্যে বীরভূম বাদ দিয়ে বাকি সমস্ত জেলায় অ্যাক্টিভ কেস কমেছে। যার ফলে দৈনিক অ্যাক্টিভ কেসের রেকর্ড পতন হয়েছে সোমবার। একদিনে অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা কমেছে ৭,৮৫০। মোট অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৭,০৪৮। 

এদিন রাজ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৭,৮৫৬। মোট সুস্থতার সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১২,৭৩,৭৮৮। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৯২.৫৫ শতাংশ। সামগ্রিক পজিটিভিটি রেশিও বেড়ে হয়েছে ১১.০৭ শতাংশ।

 

বন্ধ করুন