বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > ডবল ইঞ্জিন হেলিকপ্টার ভাড়া নিতে আগ্রহী রাজ্য সরকার, ডাকা হল টেন্ডার
নবান্ন (‌ছবি সৌজন্য টুইটার)‌
নবান্ন (‌ছবি সৌজন্য টুইটার)‌

ডবল ইঞ্জিন হেলিকপ্টার ভাড়া নিতে আগ্রহী রাজ্য সরকার, ডাকা হল টেন্ডার

  • এই টেন্ডারের সাপেক্ষে আগামী ৫ জানুয়ারির মধ্যে আগ্রহী সংস্থাকে নিজেদের দরপত্র জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

বাতানুকূল ডবল ইঞ্জিনের হেলিকপ্টার, যেখানে ভিআইপি পরিষেবা দেওয়ার মতো যাবতীয় বন্দোবস্ত থাকবে, তেমনই হেলিকপ্টার এবার ভাড়া নিতে আগ্রহী পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এবিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকার একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রতি মাসে ৪৫ ঘণ্টা করে আকাশে উড়বে এমন হেলিকপ্টার পরিষেবার প্রয়োজন রয়েছে।

ইতিমধ্যেই ভিআইপি পরিষেবা দানকারী হেলিকপ্টার ভাড়া চেয়ে টেন্ডার ডেকেছে রাজ্যসরকার। চলতি মাসের ১৪ তারিখে রাজ্য পরিবহণ দফতর একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে 'ওয়েট লিজ' এ হেলিকপ্টার ভাড়া নেওয়ার কথা জানিয়েছে। এই বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, যে সংস্থা হেলিকপ্টার ভাড়া দেবে, তাদের উপরেই থাকবে চালকের দায়িত্ব থেকে রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রতি মাসে ৪৫ ঘণ্টা উড়ান দিতে হবে এই হেলিকপ্টারকে। এছাড়াও রাজ্য সরকার চাইছে, ক্রু মেম্বার ছাড়া ছয় জন যাতে বসতে পারেন, এমন এক হেলিকপ্টার চাই। এই টেন্ডারের সাপেক্ষে আগামী ৫ জানুয়ারির মধ্যে আগ্রহী সংস্থাকে নিজেদের দরপত্র জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এখানেই শেষ নয়। রাজ্যসরকারের পেশ করা বক্তব্যে সাফ বলা হয়েছে, হেলিকপ্টারটি যেন আট বছরের বেশি পুরনো না হয়। এছাড়াও বলা হয়েছে, আকাশপথে চলার জন্য যা নিয়ম রয়েছে, তা সম্পূর্ণ রূপে ওই হেলিকপ্টারকে মেনে চলতে হবে। এর কোনও দায় রাজ্য সরকার নেবে না।

যে বিজ্ঞপ্তি রাজ্য সরকার এই হেলিকপ্টারের জন্য জারি করেছে, তাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, শেষ তিনি আর্থিক বছরে যে সংস্থা ২৫ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে তাদেরই সরকার এই টেন্ডারে আহ্বান করছে। যে সংস্থা এই ডাকে সাড়া দেবে, তাদের কাছে অতিরিক্ত হেলিকপ্টার থাকতে হবে বলেও জানিয়েছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও হেলিকপ্টার যদি পর পর তিন দিন বিকল হয়ে যায়, তাহলে সরকারকে ব্যবহারের জন্য অন্য হেলিকপ্টার বিনা খরচে দিতে হবে সংস্থাকে। সরকারি বিজ্ঞপ্তি বলছে, মাসে ২ দিন ওই হেলিকপ্টারকে রক্ষণাবেক্ষণের জন্য ছাড় দেওয়া হবে।

 

বন্ধ করুন