৩১ জানুয়ারি এবং ১ ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্ক ধর্মঘট ডাকল কর্মী সংগঠন।
৩১ জানুয়ারি এবং ১ ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্ক ধর্মঘট ডাকল কর্মী সংগঠন।

মাসের শেষে ২ দিন ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক কর্মী সংগঠনের

  • দুই দিনের ধর্মঘটে ফল না মিললে তাঁরা ১ ফেব্রুয়ারির পরে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট চালিয়ে যাবেন।

সপ্তাহে পাঁচ দিন কাজ, বেতন কাঠামোর পুনর্বিন্যাস-সহ একগুচ্ছ দাবিতে ধর্মঘটের ডাক দিলেন রাজ্যের ব্যাঙ্ক কর্মীরা। আগামী ৩১ জানুয়ারি ও ১ ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন ব্যাঙ্ক অফিসারদের সংগঠন।

সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে. ১১-১৩ মার্চ দেশব্যাপী ব্যাঙ্ক কর্মীদের বিক্ষোভ অবস্থান চলবে। দাবি না মানা হলে পরে অনির্দিষ্টকালের জন্য ব্যাঙ্ক ধর্মঘট শুরু হবে।

১৫% বেতন বৃদ্ধির হার-সহ একাধিক দাবিতে ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যাঙ্ককর্মীরা। তাঁরা জানিয়েছেন, প্রাথমিক দুই দিনের ধর্মঘটে ফল না মিললে তাঁরা ১ ফেব্রুয়ারির পরে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট চালিয়ে যাবেন।

সোমবার মুম্বইয়ে ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নের মধ্যে বৈঠক ভেস্তে গেলেও ২ দিন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে অফিসারদের সংগঠন।

নিখিল ভারতীয় ব্যাংক অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি কুমার অরবিন্দ জানিয়েছেন যে বর্তমানে ১২% বেতনবৃদ্ধির পরিকল্পনা থাকলেও ২০১৫ সালে ১৫% বেতন বৃদ্ধি হয়েছিল। ধর্মঘটে অংশগ্রহণ করতে চলেচে ব্যাঙ্ক কর্মীদের নয়টি কর্মী সংগঠন।

জানা গিয়েছে, ধর্মঘটের জেরে ব্যাঙ্কিং সেক্টরে বড়সড় প্রভাব পড়তে চলেছে। ধর্মঘটে বন্ধ রাখা হবে এটিএম পরিষেবাও। যার ফল ভুগতে হবে সাধারণ মানুষকে।

বন্ধ করুন