বাংলা নিউজ > কর্মখালি > Constable hiring age limit change: কনস্টেবল নিয়োগে বয়সসীমা বাড়িয়ে ৩০ বছর করার ভাবনা

Constable hiring age limit change: কনস্টেবল নিয়োগে বয়সসীমা বাড়িয়ে ৩০ বছর করার ভাবনা

করোনা অতিমারি এবং বিভিন্ন কারণে দীর্ঘদিন ধরে রাজ্য পুলিশে কনস্টেবল পদে নিয়োগ বন্ধ ছিল। মাস খানেক আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশে প্রচুর নিয়োগের কথা ঘোষণা করেছেন। এ বিষয়ে নির্দেশও দিয়েছেন। সম্প্রতি নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

পুলিশ কনস্টেবলের বয়সসীমা বাড়ানোর ভাবনা চিন্তা। প্রতীকী ছবি

রাজ্য পুলিশের কনস্টেবলে নিয়োগে চাকরি প্রার্থীদের জন্য বড় সুযোগ। কনস্টেবল নিয়োগের ক্ষেত্রে বড় পরিবর্তন আনার কথা চিন্তাভাবনা করছেন পুলিশের শীর্ষ কর্তারা। বর্তমানে সাধারণ তালিকাভুক্তদের ক্ষেত্রে কনস্টেবল পদে আবেদনের বয়সসীমা হল ২৭ বছর। তবে সেই বয়সসীমা আরও তিন বছর বাড়িয়ে ৩০ বছর করার ভাবনাচিন্তা করছেন পুলিশের শীর্ষকর্তারা। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে আইনি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলছেন তাঁরা। দ্রুত এ বিষয়ে নবান্নে প্রস্তাব পাঠানোর সিন্ধান্ত নিয়েছেন পুলিশের কর্তারা।

আরও পড়ুন: কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল পদে এবার বড় নিয়োগ হবে, অনুমোদন দিল মন্ত্রিসভা

করোনা অতিমারি এবং বিভিন্ন কারণে দীর্ঘদিন ধরে রাজ্য পুলিশে কনস্টেবল পদে নিয়োগ বন্ধ ছিল। মাস খানেক আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পুলিশে প্রচুর নিয়োগের কথা ঘোষণা করেছেন। এ বিষয়ে নির্দেশও দিয়েছেন। সম্প্রতি নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। পুলিশের শীর্ষকর্তাদের মতে, অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে পুলিশের চাকরির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। কিন্তু, নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ থাকার ফলে তাঁদের বয়সসীমা ইতিমধ্যেই পেরিয়ে গিয়েছে। ফলে বেকার যুবক যুবতীরা যাতে চাকরিতে সুযোগ পান সেই সমস্ত কথা মাথায় রেখে বয়সসীমা বাড়ানোর চিন্তাভাবনা করছেন পুলিশের কর্তারা। যদিও সংরক্ষিত ক্যাটাগরির ক্ষেত্রে বয়সে ছাড় রয়েছে। তবে সাধারণ ক্যাটাগরিতে এই বয়সসীমা ২৭ বছর পর্যন্তই ছিল। ৩০ বছর পর্যন্ত বয়সীমা করা হলে সে ক্ষেত্রে অনেকে যেমন কাজের সুযোগ পাবেন তেমনি দ্রুত যোগ্য প্রার্থীদের কাজে নিয়োগ করাও সম্ভব হবে বলে মনে করছেন আধিকারিকরা।

অন্যদিকে, শুধু বয়স বাড়ানোই নয়, শরীরের পূর্ব নির্ধারিত মাপের ক্ষেত্রেও ছাড় দেওয়ার কথা ভাবছেন শীর্ষ কর্তারা। দ্রুতই এ বিষয়ে তাঁরা নবান্নর কাছে প্রস্তাব পাঠাতে পারেন। এ বিষয়ে শীর্ষ কর্তারা ইতিমধ্যেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। পুলিশের চাকরির ক্ষেত্রে পড়াশোনার পাশাপাশি শারীরিক সক্ষমতার জন্য প্র্যাকটিসও চালিয়ে যেতে হয় কনস্টেবলদের। কিন্তু, অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে প্র্যাকটিস করার পরেও চাকরিতে আবেদন করতে পারছেন না। কারণ তাঁদের বয়স পেরিয়ে গিয়েছে। তাই বিষয়টি মানবিকতার দিক থেকে খতিয়ে দেখে বয়সসীমা বাড়ানোর কথা চিন্তাভাবনা করছে পুলিশ। এছাড়াও সম্প্রতি রূপান্তরকামীদের নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে পুলিশ। তাছাড়া, মহিলা কনস্টেবল পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। কয়েকদিন আগেই এই পদের জন্য পরীক্ষা হয়েছে। উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কয়েক মাসের মধ্যে নিয়োগ নিয়োগ সম্পন্ন করতে বলেছেন। সেইমতোই পদক্ষেপ করছে পুলিশ।