বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > মমতাকে 'এবার লাথি না, গুঁতিয়ে দেওয়ার দরকার', আক্রমণ আব্বাসের
আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকি (‌ছবি সৌজন্য পিটিআই) (PTI)
আইএসএফ প্রধান আব্বাস সিদ্দিকি (‌ছবি সৌজন্য পিটিআই) (PTI)

মমতাকে 'এবার লাথি না, গুঁতিয়ে দেওয়ার দরকার', আক্রমণ আব্বাসের

  • আব্বাসের দাবি, এ রাজ্যে মুসলিম ওয়াকফ সম্পত্তির ওপর বিজেপির পার্টি অফিস তৈরি করতে সাহায্য করেছেন তিনি।

নিরীহ তৃণভোজী গরু নিয়েই বাংলার রাজনীতিতে যত কাণ্ড।বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের গরুর দুধে সোনা পাওয়ার তত্বই হোক কিংবা মমতা বন্দোপাধ্যায়ের ‘গরুর লাথি খাওয়ার’ মন্তব্য। সবেতেই স্তন্যধারী এই প্রাণীটির অবাধ বিচরণ। তার মধ্যই এবার নয়া সংযোজন জুড়ল ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট (‌আইএসএফ)‌।

মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বক্তব্যের রেশ ধরেই মঙ্গলবার মেটিয়াবুরুজের বাদামতলার এক জনসভায় আইএসএফের আব্বাস সিদ্দিকির বক্তব্য, ‌‘‌ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেড রোডে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, যে গরু দুধ দেয়, সেই গরুর লাথি খাওয়া ভালো। তার মানে মুসলিমরা গরু। মুসলিমদের ভোটের উপরেই নির্ভরশীল রয়েছেন দিদি, এবার লাথি না—গুঁতিয়ে দেওয়ার দরকার আছে!’‌

তাঁর আরও বিস্ফোরক দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্যেই বাংলায় বিজেপি এসেছে। আব্বাস আরও বলেন, ‘‌ ক্ষমতায় আসার পর মমতা নিজের কথা রাখেননি। তিনি বলেছিলেন, ওয়াকফ সম্পত্তি ফিরিয়ে দেওয়া হবে।কিন্তু কোনও জায়গায় তা ফেরত দেওয়া হয়নি। উলটে এ রাজ্যে মুসলিম ওয়াকফ সম্পত্তির উপর বিজেপির পার্টি অফিস তৈরি করতে সাহায্য করেছেন তিনি।’‌

তৃণমূল প্রার্থী ফিরহাদ হাকিমকে লক্ষ্য করে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি আব্বাস। তিনি বলেন, ‘‌ ববি হাকিম আন্তর্জাতিক অপরাধী। সম্পূর্ণ মুসলিম সম্প্রদায়কে নষ্ট করে দিচ্ছেন। ববি হাকিম বলেছিলেন, ‘‌মেটিয়াবুরুজ মিনি পাকিস্তান।’‌ সেটা তাঁকে দিয়ে বলানো হয়েছিল। যাতে তাঁর কথার উপর ভর করতে এ রাজ্যে বিজেপির ঘাঁটি গাড়তে পারে। ২০১১ সালের আগে এরাজ্যে বিজেপি ছিল না।’‌

আব্বাস প্রশ্ন তোলেন, ‘২০১১ সালের আগে বাংলায় কি বিজেপি ছিল? ছিল না। তৃণমূল এল। তারপরই এরাজ্যে বিজেপি ঢুকল।’ তিনি আরও বলেন, ‘‌ তৃণমূলের নেতারা এখন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। মেটিয়াবুরুজের প্রাক্তন বিধায়ক আবদুল খালেদ মোল্লাও বিজেপিতে চলে যাবেন। আজ রাজ্যে হিন্দু-মুসলিমের সম্পর্ক খারাপ হয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্যই।’

বন্ধ করুন