বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > জাকির হোসেনের ওপর বোমার নেপথ্যে তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব, দাবি‌ রেলের আধিকারিকদের
নিমতিতা স্টেশনে তদন্তে পুলিশ। ডানদিকে, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মন্ত্রী জাকির হোসেন। ছবি সৌজন্য :‌ এএনআই
নিমতিতা স্টেশনে তদন্তে পুলিশ। ডানদিকে, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মন্ত্রী জাকির হোসেন। ছবি সৌজন্য :‌ এএনআই

জাকির হোসেনের ওপর বোমার নেপথ্যে তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্ব, দাবি‌ রেলের আধিকারিকদের

  • সম্প্রতি বাম ছাত্র যুবদের নবান্ন অভিযানে পুলিশের লাঠিচার্জে বাম কর্মী মইদুল ইসলাম মিদ্দার মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সেই প্রসঙ্গও এদিন তুলে ধরেছেন রেল মন্ত্রকের ওই অফিসাররা।

‌শিশির গুপ্ত

নিমতিতা স্টেশনে রাজ্যের শ্রম দফতরের প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপর বোমাবাজির ঘটনায় রেলের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার রেল এ ব্যাপারে তাদের অবস্থানের কথা পরিষ্কার জানিয়ে দিল। এ ঘটনার তদন্তের ব্যাপারে ওয়াকিবহাল রেল মন্ত্রকের আধিকারিকরা বৃহস্পতিবার দাবি করেছেন, শাসকদল তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দলের জেরেই এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বোমাবাজির ঘটনায় জঙ্গি যোগের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিয়েছেন রেল মন্ত্রকের ওই আধিকারিকরা। পাশাপাশি তাঁদের যুক্তি, এ ঘটনার নেপথ্যে সিপিআই ও তৃণমূলের রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের প্রভাবও থাকতে পারে। সম্প্রতি বাম ছাত্র যুবদের নবান্ন অভিযানে পুলিশের লাঠিচার্জে বাম কর্মী মইদুল ইসলাম মিদ্দার মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সেই প্রসঙ্গও এদিন তুলে ধরেছেন রেল মন্ত্রকের ওই অফিসাররা। তাঁদের কথায়, ডিওয়াইএফআই কর্মীর মৃত্যুতে এলাকায় উত্তেজনা বাড়ছিল। এর প্রতিহিংসারও ফল হতে পারে বুধবার রাতে ঘটনা।

আর এক চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে এনেছেন ওই আধিকারিকরা। পরিচয় গোপন করে তাঁরা জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে তৃণমূল কংগ্রেসের দুই নেতার বিরুদ্ধে খুনের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ এনেছিলেন জাকির হোসেন। এ ব্যাপারে তিনি পুলিশেও অভিযোগ জানান। রেল মন্ত্রকের ওই আধিকারিকদের মতে, রাজ্যের আইন–শৃঙ্খলা পরিস্থিতি আরও কড়া করা উচিত পশ্চিমবঙ্গ সরকারের। এদিকে, রেলস্টেশনে হামলা হওয়ায় জাকির হোসেনের দ্রুত আরোগ্য কামনা করে টুইট করেছেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।

উল্লেখ্য, বুধবার রাতে কলকাতাগামী ট্রেন ধরতে মুর্শিদাবাদের নিমতিতা স্টেশনে পৌঁছলে স্টেশনের ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে জাকির হোসেনকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, জাকির হোসেন–সহ তৃণমূলের ২৬ জন নেতাকর্মী এই বোমবাজির ঘটনায় জখম হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ১৪ জনের অবস্থা গুরুতর।

বুধবার রাতে ঘটনাস্থল থেকে প্রথমে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় জাকির হোসেন–সহ ঘটনায় জখম সকলকে। সেখান থেকে এদিন ভোর সাড়ে ৪টে নাগাদ কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় রাজ্যের প্রতিমন্ত্রীকে। এসএসকেএমে আইসিইউ–তে রাখা হয়েছে তাঁকে। বৃহস্পতিবার সকালে জাকির হোসেনকে দেখতে হাসপাতালে যান পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতা এদিন দাবি করেছেন, পরিকল্পিতভাবেই জাকির হোসেনের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। তিনি এদিন হাসপাতালে বলেন, ‘‌রিমোটে বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। স্টেশনে পা দিয়ে হাঁটার সময় বিস্ফোরণ করা হয়েছে। জেনেশুনেই করা হয়েছে।’‌ রেলের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে মমতা বলেন, ‘এ‌টা রেল স্টেশনে হয়েছে, সেই সময় রেলের নাকি কোনও পুলিশ–টুলিশ কেউ ছিলেন না। সেই সময় জায়গাটা অন্ধকার ছিল। মানে আলোও ছিল না।’‌ মমতার মতে, ‘‌জাকির হোসেনকে খুন করার গেমপ্ল্যান এটা। এটা বড়সড় ষড়যন্ত্র। আমরা চাই যে সত্যিটা বেরিয়ে আসুক।’‌

বুধবার রাতে নিমতিতা স্টেশনের ঘটনায় যাঁরা গুরুতর আহত হয়েছেন, তাঁদের পাঁচ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য করা হবে এবং যাঁদের আঘাতের পরিমাণ কম, তাঁদের এক লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে এদিন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিকে, মন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপর হামলার তদন্তভার নিয়েছে সিআইডি। নিমতিতায় তদন্ত করতে ইতিমধ্যে হাজির হয়েছেন সিআইডি আধিকারিক এবং ফরেন্সিক দলের সদস্যরা।

বন্ধ করুন