বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‌চাকদহে বুথের কাছেই আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে ছুটলেন নির্দল প্রার্থী, পরে আটক
‌চাকদহে বুথের সামনে আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে ছুটলেন নির্দল প্রার্থী! ছবি (‌স্ক্রিনগ্র‌্যাব)‌
‌চাকদহে বুথের সামনে আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে ছুটলেন নির্দল প্রার্থী! ছবি (‌স্ক্রিনগ্র‌্যাব)‌

‌চাকদহে বুথের কাছেই আগ্নেয়াস্ত্র উঁচিয়ে ছুটলেন নির্দল প্রার্থী, পরে আটক

  • দুষ্কৃতীর ফেলা বন্দুক পুলিশের কাছে নিয়ে যাচ্ছিলেন দাবি তাঁর

সাদা পাঞ্জাবির পকেটের ভাঁজের মধ্যে প্যাঁচানো অবস্থায় উঁকি মারছে লোহার নল। হাতে শক্ত করে ধরা বাঁট। এই অবস্থায় বুথের আশেপাশে ছুঁটছেন নির্দল প্রার্থী!‌ পঞ্চম দফার ভোটের দিন প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র হাতে প্রার্থীকে বুথের কাছে ঘুরে বেড়াতে দেখে আতঙ্ক ছড়াল চাকদহে। নির্দল প্রার্থী কৌশিক ভৌমিকের বিরুদ্ধে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

যদিও ওই নির্দল প্রার্থীর দাবি করেছেন, তাঁকে আক্রমণ করার জন্য আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ঘুরছিল একদল দুষ্কৃতী। প্রার্থীর লোকজনকে সামনে দেখে সে ছুড়ে পালিয়ে যায়। পড়ে থাকা ওই আগ্নেয়াস্ত্রই নাকি তিনি পুলিশের কাছে নিয়ে যাচ্ছিলেন!

আগ্নেয়াস্ত্র হাতে ওই নির্দল প্রার্থীকে ঘুরতে দেখে তাঁকে ঘিরে ধরেন স্থানীয় বাসিন্দারা। প্রত্যেক্ষদর্শীদের অভিযোগ, পঞ্জাবির পকেটে করে তিনি আগ্নেয়াস্ত্রটি নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই আগ্নেয়াস্ত্রটি বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ। এদিকে নির্দল প্রার্থীর দাবি করেন, আমাকে লক্ষ্য করে বন্দুক ছুঁড়ে পালায় দুষ্কৃতী। তাঁর আরও দাবি, আগ্নেয়াস্ত্রটি পুলিশের কাছে নিয়ে যাচ্ছিলেন।

তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, তাঁকে ঘিরে ধরলে, অস্ত্র ফেলে চম্পট দেওয়ার চেষ্টা করেন ওই প্রার্থী। কিন্তু স্থানীয়রা তাঁকে ধরে ফেলেন। পুলিশ আগ্নেয়াস্ত্রটি বাজেয়াপ্ত করেছে। ঘটনার খবর পেয়েই বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কিছুক্ষণ পরে চাকদহ থানার পুলিশ ওই প্রার্থীক তাঁর বাড়ি থেকে আটক করে।

অন্য দিকে, ভোটপঞ্চমীর সকাল থেকেই নদিয়ার একের পর এক জায়গা থেকে দফায় দফায় অশান্তির খবর আসে। কল্যাণীতে বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বোমাবাজি, শান্তিপুরে ভোটারদের ভয় দেখিয়ে ভোটদানে বাধা দেওয়া—সহ একাধিক অভিযোগ উঠে আসতে শুরু করে। এছাড়াও কল্যাণীর সুকান্তনগরে বহিরাগতদের লাঠিচার্জ করে বাহিনী। অভিযোগ ওঠে, ভোট শুরু হওয়ার পর থেকেই ২২৫ নম্বর বুথের আশেপাশের গলিতে বেআইনি জমায়েত হতে শুরু করে। সেই বেআইনি জমায়েত হাটাতে লাঠি চালানো হয়। কল্যাণী-গয়েশপুর এক্সপ্রেসওয়েতে ভোট দিতে না পেরে অবরোধ করেন ভোটাররা। শান্তিপুরে একসময় কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভও দেখান স্থানীয়রা। পরে অবশ্য স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন ও কেন্দ্রীয় বাহিনী বিভিন্ন জায়গার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বন্ধ করুন