বাংলা নিউজ > ভোটের লড়াই > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > দীনেশ ত্রিবেদীর ইস্তফায় ঘোড়া কেনা-বেচার হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছে তৃণমূল
রাজ্যসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক শুখেন্দুশেখর রায়।  (PTI)
রাজ্যসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক শুখেন্দুশেখর রায়।  (PTI)

দীনেশ ত্রিবেদীর ইস্তফায় ঘোড়া কেনা-বেচার হয়ে থাকতে পারে বলে মনে করছে তৃণমূল

  • শুখেন্দুশেখরবাবুর কটাক্ষ, ‘ওনার তো মাঝে মাঝেই দম বন্ধ হয়ে আসে। লোকসভায় হারার পর দম বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পায়ে পড়ে রাজ্যসভার টিকিট পেয়েছিলেন।

দীনেশ ত্রিবেদীর ইস্তফা নিয়ে বিস্ফোরক দাবি করলেন রাজ্যসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক শুখেন্দুশেখর রায়। শুক্রবার তিনি বলেন, ‘দীনেশ ত্রিবেদীর ইস্তফায় ঘোড়া কেনাবেচার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।’ তাঁর ইস্তফাকে এদিন কটাক্ষ করেন শুখেন্দুশেখর বাবু। 

এদিন শুখেন্দুশেখরবাবু বলেন, ‘রাজ্যসভায় বাজেটের ওপর তৃণমূলের ২ জনের বলার কথা ছিল। আমি ও আবির রঞ্জন বিশ্বাস। আমাদের ২ জনেরই বলা হয়ে গিয়েছিল। তৃণমূলের জন্য বরাদ্দ সময়ও শেষ হয়ে গিয়েছিল। তার পর কী করে দীনেশ ত্রিবেদী সময় পেলেন জানি না। বিষয়টা খতিয়ে দেখতে হবে।’

তিনি জানান, ‘রাজ্যসভায় বাজেটের ওপর বিতর্কের সময় কোনও মধ্যাহ্নভোজের বিরতি থাকে না। দুপুর দেড়টা নাগাদ আমি সংসদ থেকে বাড়িতে গিয়েছিলাম খাবার ও ওষুধ খেতে। তখন উনি সরকারপক্ষকে ম্যানেজ করে রাজ্যসভায় বলতে ওঠেন। বাজেট নিয়ে বিতর্ক হলেও অন্য প্রসঙ্গে বলতে থাকেন তিনি।’

শুখেন্দুশেখরবাবুর কটাক্ষ, ‘ওনার তো মাঝে মাঝেই দম বন্ধ হয়ে আসে। লোকসভায় হারার পর দম বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পায়ে পড়ে রাজ্যসভার টিকিট পেয়েছিলেন। এখন আবার ওনার দম বন্ধ হয়ে আসছে। এর পর কোনও দিন মোদীর অবস্থা খারাপ দেখলে ওনার আবার দম বন্ধ হতে পারে। এত দম বন্ধ হলে তো মুশকিল।’

বর্ষীয়ান সাংসদ জানান, ‘তৃণমূল কংগ্রেস তৈরি হয়েছে তৃণমূল স্তরের কর্মীদের নিয়ে। ওনার ইস্তফায় একজন তৃণমূল স্তরের কর্মী রাজ্যসভায় আসার সুযোগ পাবেন।’ শেষে শুখেন্দুশেখর বলেন, ‘ওনার ইস্তফায় ঘোড়া কেনাবেচার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। ওদের মধ্যে কী কথা হয়েছে কী করে বলবো?’

 

বন্ধ করুন