বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ৪২ বছরের দম্পত্য, ১৯৮০ সালে ধর্মেন্দ্রর সঙ্গে বিয়ের দিনে হেমা! ভাইরাল পুরনো ছবি
বিয়ের দিন হেমা এবং ধর্মেন্দ্র
বিয়ের দিন হেমা এবং ধর্মেন্দ্র

৪২ বছরের দম্পত্য, ১৯৮০ সালে ধর্মেন্দ্রর সঙ্গে বিয়ের দিনে হেমা! ভাইরাল পুরনো ছবি

  • বিয়ের দিন একসঙ্গে খেতে বসেছিলেন হেমা এবং ধর্মেন্দ্র, ৪২ বছর পর ভাইরাল ছবি। 

বিয়ের পোশাকে, গলায় মালা পরে অভিনেত্রী হেমা মালিনি, পাশে বসা ধর্মেন্দ্র। নেটমাধ্যমে বলিউডের তারকা দম্পতির এমনই একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। সিনেফাইলের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট বলিউড নস্টালজিয়াতে ১৯৮০ সালের ২ মে হেমা-ধর্মেন্দ্রর বিয়ের একটি পুরনো শেয়ার করা হয়েছে। ছবিতে, দম্পতিকে দুই পুরোহিতের সঙ্গে মেঝেতে বসে থাকতে দেখা যায়। হেমার পাশে এক মহিলা দাঁড়িয়ে ছিলেন।

ম্য়াচিং ব্লাউজের সঙ্গে গাঢ় রঙের শাড়ি পরে রয়েছেন হেমা। হেমার পাশে বসে ধর্মেন্দ্রর পরনে সাদা পোশাক। সামনে রাখা খাবারের বক্সের দিকে তাকিয়ে বসা অভিনেতা। মেঝেতে খাবারের জন্য বসার সময় বেশ কিছু বাসনপত্র ও লাঞ্চ বক্স রাখা হয়েছিল। একজন পুরোহিতকে যখন খাবার খেতে দেখা গেল, তখন অপরজন খাবার খেতে শুরু করবেন।

পোস্টের ক্যাপশনে লেখা, ‘ধর্মেন্দ্র ও হেমা, ২ মে, ১৯৮০।’ গত বছর ইন্ডিয়ান আইডলে এক মন্তব্য করেছিলেন হেমা, ‘সাধারণত আমার মা অথবা পিসি শ্যুটিংয়ের সময় আমার সঙ্গে থাকতেন। কিন্তু গানের শ্যুটিংয়ের সময় বাবা সঙ্গে যেতেন। আমার এবং ধরমজির একসঙ্গে সময় কাটানো ঠিক নয় বলে মনে করতেন তিনি। বাবা জানতেন আমরা বন্ধু। আমার মনে আছে আমরা যখন গাড়িতে যাতায়াত করতাম, আমার বাবা আমার পাশে বসতেন। কিন্তু ধরমজিও কম ছিলেন না। তিনিও পাশের সিটে বসতেন।’

সোমবার ৪২তম বিবাহবার্ষিকী উদযাপন করেন হেমা মালিনি এবং ধর্মেন্দ্র। ৪২ বছরের দাম্পত্যজীবনে অনেক চড়াই-উতরাই দেখেছেন দু’জনে। ধর্মেন্দ্র সঙ্গে ছবি শেয়ার করে নেটমাধ্যমে অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘আজ আমাদের বিবাহবার্ষিকী। এত বছর ধরে সুখে সংসার করছি আমরা। ছেলেমেয়ে, নাতিনাতনীদের নিয়ে সুখে ঘরকন্না করছি। সবই ঈশ্বরের আর্শীবাদে। ভগবানকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। আর আমাদের যাঁরা শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, তাঁদেরও অসংখ্য ধন্যবাদ।’

বন্ধ করুন