বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > চুপিসাড়ে নিকাহ সারলেন সানা খান! গতমাসে গ্ল্যামার দুনিয়াকে বিদায় জানান নায়িকা
মুফতি অনসের সঙ্গে নিকাহ করলেন সানা খান 
মুফতি অনসের সঙ্গে নিকাহ করলেন সানা খান 

চুপিসাড়ে নিকাহ সারলেন সানা খান! গতমাসে গ্ল্যামার দুনিয়াকে বিদায় জানান নায়িকা

  • ৮ অক্টোবর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে বলিউড তথা বিনোদন জগতকে অলবিদা জানান সানা। শুক্রবার রাতে সুরাটে বিয়ের পর্ব সারলেন প্রাক্তন নায়িকা। 

অক্টোবর মাসে আচমকা গ্ল্যামায় দুনিয়াকে বিদায় জানিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন সানা খান। বিগ বস খ্যাত এই তারকা সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে ঘোষণা করেছিলেন ‘আল্লাহর দেখানো পথে হেঁটে মানুষের সেবা করতে চান’, তাই বলিউড বা বিনোদন জগতের সঙ্গে আর কোনও সম্পর্ক রাখতে চান না তিনি। এবার সামনে এল সানার বিয়ের খবর! হ্যাঁ, শুক্রবার রাতে সুরাটে সলমন খানের জয় হো কো-স্টার নিকাহ সারলেন মুফতি অনসের সঙ্গে। জানিয়েছে স্পটবয়ইতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন। 

সানা খান ও মুফতি অনসের এই জাঁকজমকহীন বিয়ের আসরের প্রথম ছবি ও ভিডিয়ো ইতিমধ্যেই সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে বিগ বস খ্যাত অপর তারকা এয়জাজ খানের সৌজন্যেই নাকি মুফতি অনসের সঙ্গে প্রথম পরিচয় সানার। বিয়ের আসরে মাথায় সাদা হিজাব, পরনেও দুধসাদা পোশাকে পাওয়া গেল সানাকে। কনের সঙ্গে সাযুজ্য রেখে সাদা কুর্তা-পাজামায় সেজেছিলেন সানার দুলহে মিঁয়া। 

পরিবার ও হাতেগোনা বন্ধুদের উপস্থিতিতেই বসেছিল এই বিয়ের আসর। ভিডিয়োও নবদম্পতিতে সৌজন্য বিনিময় করতে দেখা গেল, এরপর কেক কেটে নতুন জীবনের সেলিব্রেশন করলেন সানা খান। 

শোবিজ ছেড়ে দেওযার কারণ হিসাবে গত ৮ অক্টোবর সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে সানা লেখেন-  ‘আমি আমার জীবনের গুরুত্বপূর্ন অধ্যায়ের মধ্যে রয়েছি। আমি কয়েক বছর ধরে শোবিজের দুনিয়ায় জীবন কাটাচ্ছি, এবং এই সময় আমি প্রচুর খ্যাতি, সম্মান, অর্থ ও ভালোবাসা পেয়েছি আমার ভক্তদের কাছ থেকে- আমি কৃতজ্ঞ। তবে গত কয়েক দিন ধরে আমার মাথায় একটা চিন্তা-ভাবনা কাজ করছে, একজন কি শুধুই নিজের জন্য অর্থ এবং খ্যাতির খোঁজে জন্ম নেয়? এটা কি মানুষের নৈতিক দায়িত্ব নয়- যাঁরা দুঃস্থ, যাঁদের নিঃসম্বল তাঁদের সেবা-যত্ন করার? মানুষের কি এটা ভাবা উচিত নয় যে মরণের পারে কী হবে? আমরা তো যে কোনও সময়ই মরতে পারি, তাই না?’

সানা আরও লেখেন, তিনি ধর্মের পথে হেঁটে এর উত্তর খুঁজতে চান। তাঁর মতে, ‘পৃথিবীতে জন্ম নিয়ে মৃত্যু পরবর্তী জীবনের উন্নতির জন্য কাজ করা দরকার। সৃষ্টিকর্তার নির্দেশ মতো যদি একজন ভৃত্য তার জীবন যাপন করেন তাহলেই ভালো। সবসময়ে অর্থ ও খ্যাতির পিছনে ছুটে বেড়ানোর অর্থহীন'।

২০১২-১৩ সালে বিগ বসের মঞ্চে সিজন ৬- এর ফাইনালিস্ট ছিলেন সানা। এই শোয়ের জেরেই খ্যাতির শিখরে পৌঁছান নায়িকা। যদিও গ্ল্যামার দুনিয়ায় তাঁর পথচলা শুরু ২০০৫ সালে। হিন্দির পাশাপাশি তামিল,তেলুগু ছবিতেও অভিনয় করেছেন সানা- তবে তাঁর কেরিয়ারের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ছবি নিঃসন্দেহে সলমন খানের সঙ্গে ‘জয় হো’ এবং ইরোটিক থ্রিলার ‘ওয়াজাহ তুম হো’। সানাকে শেষ দেখা গিয়েছে হটস্টারের ‘স্পেশ্যাল ওপস’ (Special OPS) ওয়েব সিরিজে।

 

বন্ধ করুন