বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘কখন দেবী বানাচ্ছে, কখনও নীচে নামাচ্ছে’, সুশান্ত ভক্তদের ট্রোলের সপাটে অঙ্কিতা
সুশান্ত-অঙ্কিতা
সুশান্ত-অঙ্কিতা

‘কখন দেবী বানাচ্ছে, কখনও নীচে নামাচ্ছে’, সুশান্ত ভক্তদের ট্রোলের সপাটে অঙ্কিতা

  • সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর মাসখানেক পর নেটিজেনদের রোষের মুখে পড়েছিলেন অঙ্কিতা।

প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রাক্তনী অঙ্কিতা লোখান্ডে। প্রায় ৬ বছর সম্পর্ক থাকার পর ২০১৬ সালে দুজনের বিচ্ছেদ হয়। ২০২০ সালের ১৪ জুন বান্দ্রার ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয় সুশান্তের ঝুলন্ত দেহ। এরপরই অভিনেতার মৃত্যু ঘিরে তৈরি হয় জলঘোলা। তাঁর রহস্যমৃত্যর ঘটনায় তদন্তে নামে সিবিআই, ইডি, এনসিবি। আর্থিক তছরুপ এবং মাদকাসক্ত সহ একাধিক অভিযোগ উঠে আসে মামলায়। 

এক দৈনিক সংবাদপত্রকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অঙ্কিতা জানিয়েছিলেন, সুশান্তের মৃত্যুর পর কীভাবে নেতিবাচকতা ঘিরে ধরেছিল তাঁকে চারপাশ থেকে। ট্রোল নিয়ে মুখ খোলেন তিনি। অভিনেত্রীর কথায়, ‘আমার কিছু করার ছিলনা তখন। কোনও কিছুই আমার হাতে ছিল না। লোকের যখন ইচ্ছে হবে আমাকে দেবী বানিয়ে দেবে, আবার যখন ইচ্ছে হবে আমাকে মাটিতে নামিয়ে দেবে’। 

তিনি আরও বলেন, ‘আমার মনে হয় না গত চার বছর ধরে সুশান্তের জীবনে আমার কোনও জায়গা ছিল। অন্য কারও রাগ আমার উগড়ে দেওয়ার কোনও মানেই হয়না। আমার মনে হয় সকলে তাঁদের নিজেদের মতো করে লক্ষ্যবস্তু করছে। ঠিক আছে। আমি জানি আমি কীসের জন্য বলছি এবং কী অনুভব হচ্ছে আমার। আমি জানি আমি কী দিয়ে যাচ্ছি, তাই এটা ঠিক আছে'।

সম্প্রতি সুশান্ত ভক্তদের উদ্দেশে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছিলেন অঙ্কিতা লোখান্ডে। বার বার তাঁকে দোষ দেওয়া বন্ধ করতে বলেছিলেন তিনি। তিনি বলেছিলেন, কেউ তাঁর বিষয়টি জানে না, তাই যখন তাঁকে আক্রমণ করা হয় তখন সেইটা অত্যন্ত 'বেদনাদায়ক'। তিনি আরও বলেন, তাঁর বাবা-মা ট্রোলিংয়ের দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিল।

 

 

বন্ধ করুন