বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ডিডিএলজের পায়রা খাওয়ানোর দৃশ্য নিয়ে বড়সড় রহস্যভেদ করলেন শাহরুখ
DDLJ-র দৃশ্যে শাহরুখ-অমরেশ পুরী
DDLJ-র দৃশ্যে শাহরুখ-অমরেশ পুরী

ডিডিএলজের পায়রা খাওয়ানোর দৃশ্য নিয়ে বড়সড় রহস্যভেদ করলেন শাহরুখ

  • দিলওয়ালে দুলহানিয়া লেযাঙ্গে মুক্তির ২৫ বছর পর জানা গেল পায়রা খাওয়ানোর দৃশ্যে ‘আও আও’ শব্দগুলো চিত্রনাট্যে ছিলই না!

আদিত্য চোপড়ার পরিচালনায় বলিউডে সাড়া ফেলে দেওয়া শাহরুখ -কাজল অভিনীত ব্লকবাস্টার দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে মুক্তির ২৫ বছর পূর্ণ করল গতকাল।১৯৯৫ সালের ২০ অক্টোবর মুক্তি পেয়েছিল রাজ-সিমরন জুটির প্রেমগাথা। যা আজও সমান জনপ্রিয় দর্শক হৃদয়ে। আর এই ছবির আড়াই দশক পূর্ণ হওয়ার সময় ছবির বিহাইন্ড দ্য সিন সম্পর্কে অনেক অজানা কাহিনি বেরিয়ে এসেছে। যা এতদিন ঘুণাক্ষরেও টের পাননি কেউ। 

এই ছবির বেশ কিছু দৃশ্য যা দর্শকদের মনে আজও গেঁথে রয়েছে-তার অনেকটাই স্ক্রিপ্ট বহির্ভূত অর্থাৎ অন ক্যামেরা ইম্প্রোভাইস করা হয়েছিল। জানালেন খোদ বলিউড বাদশা। মেরি ক্লেরিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শাহরুখ জানান ছবির অন্যতম মজার দৃশ্য সিমরন তথা কাজলের বাবা অমরেশ পুরীর সাথে পায়রাকে খাওয়ানোর দৃশ্যটি একদম নিজেদের মতো করে ফুটিয়ে তুলেছিলেন দুই অভিনেতা।  আসলে দিল্লিতে পায়রাদেরকে ডেকে ডেকে খাওয়ানোর সময় ওই বিশেষ 'আও আও আও......' ডাকটি শুনেছিলেন তিনি , সেটিকেই সেখানে ব্যবহার করেন, অদ্ভুত ভাবে তা বিষয়টির মাধুর্য কয়েকগুন বাড়িয়ে দিয়েছিল। এমনকি কাজলের মুখে যখন ফুলের মাধ্যমে জলের ঝাপ্টা এসে লাগে-তখন ঠিক কি করতে হবে তাও কিন্তু অন ক্যামেরা ইম্প্রোভাইস করা হয়েছিল বলেন শাহরুখ খান।

দেখুন সেই আইকোনিক দৃশ্য-

শাহরুখ- কাজল-অমরেশ পুরী ছাড়াও এই ছবির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন অনুপম খের, ফরিদা জালাল,মন্দিরা বেদী, করণ জোহরসহ ডিজাইনার মনীষ মালহোত্রা এবং সংগীত সুরকার জুটি যতীন-ললিতের মতো ব্যক্তিত্বরা।

ছবিতে রাজের বাবার চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনুপম খের। শাহরুখের ভূয়সী প্রশংসা করে বর্ষীয়ান অভিনেতা জানিয়েছেন কিভাবে অন ক্যামেরা তিনি কিং খানের সাথে হিজিবিজি কথাবার্তার দৃশ্যগুলির টেক দিতেন। জানান একটি মজার দৃশ্যে শাহরুখ বাবার কাছে এসে জানাচ্ছেন-তিনি পরীক্ষায় ফেল করেছেন,এবং সেই শুনে ছেলেকে সান্ত্বনা দিয়ে পরিবারের পূর্ব পুরুষদের ছবি দেখিয়ে কে কোন ক্লাসে ফেল করেছিলেন সেই বর্ণনা দিচ্ছেন তিনি।সেই সময় চেহারা সাথে নিজের পূর্বপুরুষের মিল খুঁজে পাওয়ায় পরিচালকের অনুমতি নিয়ে নিজের পছন্দ মতন নাম ব্যবহার করেছিলেন অনুপম।

১৯৯৫ সালে মুক্তি পাওয়া এই ছবি বক্স অফিসের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছিল। মাত্র ৪ কোটির ব্যায়ের তৈরি দিলওয়ালে দুলহানিয়া লেযাঙ্গে বক্স অফিয়ে আয় করেছিল ৮৯ কোটি টাকা, যা আজকের দিনে ৪৫৫ কোটি টাকার সমান!

ছবির সাফল্যের পুরো ক্রেডিট পরিচালক আদিত্য চোপড়াকে দিয়ে শাহরুখ বলেন- ‘আমরা একটা পরিবারের মতোই মিলেমিশে কাজ করতাম। বাস্তবিকে সম্পূর্ণ কৃতিত্বটাই আদিত্যের , আমরা শুধুই চরিত্রগুলিকে তাঁর নির্দেশ অনুসারে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি মাত্র’। 

বন্ধ করুন