বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > KIFF-এ প্রতিযোগিতামূলক বিভাগে অর্জুন-দিতিপ্রিয়ার ‘অভিযাত্রিক’, হয়ে গেল স্ক্রিনিং
প্রদর্শিত হল অভিযাত্রিক
প্রদর্শিত হল অভিযাত্রিক

KIFF-এ প্রতিযোগিতামূলক বিভাগে অর্জুন-দিতিপ্রিয়ার ‘অভিযাত্রিক’, হয়ে গেল স্ক্রিনিং

  • ২৬তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে, জাতীয় চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতামূলক বিভাগে মনোনীত অর্জুন-দিতিপ্রিয়ার ‘অভিযাত্রিক’।

সাদা কালো পর্দায় ফিরে এল সত্যজিৎ রায়ের অপু। ১৯৫৯ সালে ‘অপুর সংসার’-এর অপু ও অপর্ণাকে নুতন করে সিনেপর্দায় ফুটিয়ে তুলতে দেখা গেল অর্জুন চক্রবর্তী এবং দিতিপ্রিয়া রায়কে। সৌজন্যে শুভ্রজিৎ মিত্রের ছবি ‘অভিযাত্রিক’। সোমবার ২৬তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হল এই ছবি।  

‘অপুর সংসার’-এর ৬০ বছর পূর্তিতে পরিচালক সত্যজিৎ রায়কে শ্রদ্ধা জানিয়ে তৈরি করা হয়েছে অভিযাত্রিক। অপু ও অপর্ণাকে নতুন রূপে দেখতে পেল দর্শক মহল। ছবিতে অপুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন অর্জুন চক্রবর্তী। দিতিপ্রিয়া অভিনয় করেছেন অপুর স্ত্রী অপর্ণা-র চরিত্রে। সাদা কালো দৃশ্যে শ্যুট করা হয়েছে এই ছবি। বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় চরিত এবং বাংলা সিনেমার পর্দায় উঠে আসা অন্যতম সেলিব্রেটেড চরিত্র ‘অপু’। 

নন্দন চত্বরে অর্জুন-দিতিপ্রিয়া 
নন্দন চত্বরে অর্জুন-দিতিপ্রিয়া 

কিন্তু ‘অপুর সংসার’-এর শেষে কী হয়েছিল তাঁর? ৬ বছরের ছেলে কাজলকে কাঁধে চাপিয়ে কোন অজানা গন্তব্যে পাড়ি দিল সে? সেই প্রশ্নের উত্তর দেবে অভিযাত্রিক। বিভূতিভূষণের অপু ট্রিলজির যে অংশ নিয়ে সত্যজিত্ সিনেমা তৈরি করেননি, সেই অংশ নিয়েই এই ছবি। তাই এটি অপুর সংসারের রিমেক কোনওভাবেই নয়।  অপুর তীব্র ভ্রমণপিয়াস, অপু-কাজলের সম্পর্কের রসায়নই এই ছবির মূল উপজীব্য। 

এদিন নন্দন চত্বরে দিতিপ্রিয়াকে পাওয়া গেল গাঢ় ধূসর রঙের  সিল্কের শাড়িতে, সিলভার গয়নায় সেজেছেন অভিনেত্রী। কালো হাই নেক কালো টপের সঙ্গে শাড়ি পরেছেন তিনি। ছবির ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘কিফ-এ অভিযাত্রিকের প্রথম প্রদর্শনের কিছু ঝলক’। রানিমার অন্যরকম অবতার মুগ্ধ করল দর্শকদের। 

ছবির প্রথম প্রদর্শনীতে এদিন নন্দনে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র, প্রযোজক গৌরাঙ্গ জালান। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন অর্জুন চক্রবর্তী, সব্যসাচী চক্রবর্তী, বিক্রম ঘোষ, দিতিপ্রিয়া রায়, আয়ুষ্মাণ মুখোপাধ্যায়, সুমিত আগরওয়াল, সাহেব চট্টোপাধ্যায় প্রমুখ।ছিলেন ছবির সংগীতের দায়িত্বভার সামলানো বিক্রম ঘোষও। ছবি উত্সবের জাতীয় চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতামূলক বিভাগে জায়গা করে নিয়েছে এই ছবি। 

বন্ধ করুন