বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ারের জন্য অস্কারজয়ী হলিউড ছবির অফার ফিরিয়ে ছিলেন রনিত রায়!
রনিত রায় (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
রনিত রায় (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ারের জন্য অস্কারজয়ী হলিউড ছবির অফার ফিরিয়ে ছিলেন রনিত রায়!

  • ক্যাথরিন বিগেলোর ‘জিরো ডার্ক থার্টি’ ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েও তা ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়েছিলেন রনিত রায়, সেই আফসোস আজও তাড়া করে বেরায় বার্থ ডে বয় রনিত রায়কে। 

টেলিভিশনের পাশাপাশি বলিপাড়ারও অত্যন্ত পরিচিত মুখ রনিত রায়। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না হলিউড থেকেও ডাক এসেছিল 'আদালত' খ্যাত অভিনেতার। কিন্তু সেই সময় ধর্মা প্রোডাকশনকে আগে থেকেই স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ারের জন্য ডেট দিয়ে ফেলেছিলেন রনিত রায়, তা ফিরিয়ে দিতে হয় জিরো ডার্ক থার্টির মতো হলিউড ছবিতে অভিনয়ের সুবর্ণ সুযোগ। আজও সেই কারণে হতাশার সুর বাজে অভিনেতার কণ্ঠে। আজ ১১ অক্টোবর রনিতের জন্মদিনে তাঁরই এক পুরোনো সাক্ষাৎকারে ফিরে দেখার পালা। করণ জোহরের স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ারের শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকায় ক্যাথারিন বিগেলোর অস্কার প্রাপ্ত ছবি জিরো ডার্ক থার্টি এবং আদালত-র কাজের দরুন এমি পুরস্কার প্রাপ্ত হোমল্যান্ড ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়েও শেষমেষ পিছিয়ে আসতে হয় রনিত রায়কে। 

বিশ্বের অন্যতম কুখ্যাত সন্ত্রাসবাদী ওসামা বিন লাদেনের গোপন ডেরা খুঁজে বের করে,লাদেনকে খতম করার বাস্তব কাহিনি অবলম্বনে তৈরি ‘জিরো ডার্ক থার্টি’। ২০১২ সালে পৃথিবীর ৯৫ জন অন্যতম সমালোচকদের প্রথম দশের তালিকায় এসেছিলো এই ছবিটি। এছাড়াও ছবিটি ৮৫ তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডের মঞ্চে সেরা ছবি, সেরা অভিনেত্রী ( জেসিকা চেস্টিন ), সেরা চিত্রনাট্য সহ মোট পাঁচটি বিষয়ে মনোনয়ন অর্জন করেছিল। অবশেষে স্কাই ফলের সাথে যৌথভাবে সেরা শব্দ-সম্পাদনা বিভাগে পুরস্কৃত হয় ছবিটি।

২০১৮ সালে স্পটবয়কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা জানিয়েছিলেন-সেই সময় বিগেলোর ডাকে সাড়া দিয়ে যেতে না পারার দরুন নিজেকেই আক্ষরিক অর্থেই লাথি মারার ইচ্ছে হয়েছিল অভিনেতার। পরবর্তীকালে আদালতের সিজন ১ এর শুটিং চলাকালীন হোমল্যান্ড -র ডাক এসেছিল বলে সেই সুযোগও হাতছাড়া হয় তাঁর। সেই সময় তাঁর পক্ষে চুক্তি অনুসারে ৬ মাস আফ্রিকায় গিয়ে কাটানো সম্ভব হয়নি। পরবর্তীকালে ভারতীয় অভিনেতা সুরজ শর্মা এবং নিমরত কৌর হোমল্যান্ডে যোগ দিতে হাজির হন আফ্রিকায়।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের স্ট্রাগলের কথা স্বীকার করেছিলেন রনিত রায়। জানান ১৯৯২ সালে ডেবিউ ছবি ‘জান তেরে নাম’ সিলভার জুবিলি পার করবার পরেও দীর্ঘদিন কাজের সুযোগ পাননি তিনি। পরবর্তীকালে আর নিজেকে সেইভাবে হিরো হিসাবে বড় পর্দায় মেলে ধরতে পারেননি , আক্ষেপ ঝরে পরে তাঁর কণ্ঠে।যদিও ছোটপর্দায় একাধিক চরিত্রে তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন রনিত রায়। সাম্প্রতিক সময়ে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হটস্টারে ‘হস্টেজ’ ওয়েব সিরিজের জন্য প্রশংসা কুড়ান অভিনেতা। শীঘ্রই এই সিরিজের দু-নম্বর সিজন নিয়ে হাজির হবেন রনিত রায়। 

বন্ধ করুন