বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অস্কারের দৌড় থেকে ছিটকে গেল ‘কুড়াঙ্গাল’, ভারতের একমাত্র আশা ‘রাইটিং উইথ ফায়ার’

অস্কারের দৌড় থেকে ছিটকে গেল ‘কুড়াঙ্গাল’, ভারতের একমাত্র আশা ‘রাইটিং উইথ ফায়ার’

ছিটকে গেল কুড়াঙ্গাল

প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ ‘কুড়াঙ্গাল’, চূড়ান্ত নমিনেশন তালিকা তো দূর অস্ত শর্টলিস্ট তালিকাতেই জায়গা হল না ‘কুড়াঙ্গাল’-এর। 

২০২২ সালে অনুষ্ঠিত হতে চলা অস্কারের আসরে ভারতের অফিসিয়্যাল এন্ট্রি ছিল তামিল ফিল্ম ‘কুড়াঙ্গাল’, কিন্তু অস্কারের নমিনেশন তালিকা ছোট হতেই তাতে জায়গা হল না এই তামিল ছবির। মঙ্গলবার অ্যাকাডেমি অফ মোশন পিকচার্স আর্ট অ্যান্ড সায়েন্সের তরফে ঘোষিত হয়েছে অস্কার ২০২২-র শর্টলিস্ট সেখানেই ‘কুড়াঙ্গাল’ জায়গা না পেলেও সেরা ডকু-ফিচার বিভাগে জায়গা করে নিয়েছে ভারতের ‘রাইটিং উইথ ফায়ার’। 

পরিচালক বিনোথরাজের প্রথম ছবি ‘কুড়াঙ্গাল’ বা ‘পেবেলস’। মদ্যপ স্বামীর অত্যাচের অতিষ্ট হয়ে ঘর ছাড়ে এক মহিলা,  এরপর বউকে ঘরে ফেরাতে ছেলের হাত ধরে যাত্রা শুরু ওই মদ্যপ স্বামীর। রোদে তেতে পুড়ে বাবা-ছেলের পথ চলা রুক্ষ রাস্তা দিয়ে, মাকে নিয়ে বাড়ি ফেরার গল্পই দেখানো হয়েছে ছবিতে। চলচ্চিত্র সমালোচকদের মন ইতিমধ্যেই কেড়েছে এই ছবি। কিন্তু অস্কার জুরিদের সেভাবে নজর কাড়ল না এই ছবি। অক্টোবর মাসে কলকাতায় অনুষ্ঠিত হয়েছিল অস্কার এন্ট্রির সিলেকশন পর্ব।

অন্যদিকে এখনও অস্কারের মঞ্চে ভারতের আশা জিইয়ে রাখা ‘রাইটিং উইথ ফায়ার’-এর প্রেক্ষাপট ভারতের দলিত মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত একমাত্র সংবাদপত্র ‘খবর লহরাইয়া’। এই ডকুমেন্ট্রি ফিল্ম পরিচালনা করেছেন রিন্দু থমাস ও সুস্মিত ঘোষ। একদল দলিত মহিলা, ও তাঁদের চিফ রিপোর্টার মীরার গল্প বলে এই ডকুমেন্ট্রি। সময়োপযোগী হয়ে উঠতে কেমনভাবে প্রিন্ট থেকে ডিজিট্যাল মাধ্যমে তাঁদের সংবাদমাধ্যমকে নিয়ে যায় তারা সেই বাস্তবচিত্র উঠে এসেছে। 

আগামী বছর অস্কারের দৌড়ে সেরা ছবির বিভাগে চূড়ান্ত নমিনেশন তালিকায় জায়গা করে নিতে আপতত লড়াই করছে ১৫টি ছবি। সব মিলিয়ে মোট ৯২টি দেশের ছবি জায়গা করে নেওয়ার যোগ্য এই তালিকায়। কার হাতে উঠবে অস্কারের সোনালি ট্রফি, তা জানতে অপেক্ষা ২০২২ সালের ২৭ মার্চ পর্যন্ত। 

 

বন্ধ করুন